চোটের সঙ্গে যুদ্ধ, মাতাল অবস্থায় গাড়ী চালিয়ে হয়েছেন বিতর্কিত। টাইগার উডস হারিয়ে যাচ্ছেন, এমনটাই ভাবছিল সমর্থকেরা। তবে নতুন করে শুরু উডস অধ্যায়। সন্তানদের দেখাতে চান, তার বাবা আজও সবুজ কোর্সের হিরো। বাহামায় উডসের প্রত্যাবর্তনটা মন্দ হয়নি। টপ টেনে থেকেই শেষ করেছেন।

গলফের অল টাইম গ্রেট, শো কেসে এত-এত ট্রফি। সবুজ কোর্সে টাইগার উডস, চিরসবুজ। কিন্তু বাবাকে কেবল ”ইউটিউব গলফার” হিসেবেই কি চিনবে স্যাম আর চার্লি? উডস গলফের নায়ক। ছেলে-মেয়েকে তাই দেখাতে চান। সন্তানদের জন্যই নাকি তার এই প্রত্যাবর্তন।

প্রায় নয় মাস চোটের সঙ্গে যুদ্ধ, কোর্সের বাইরে থাকার জ্বালা মিটিয়েছেন বাহামায়। হিরো ওয়ার্ল্ড চ্যালেঞ্জে সাবেক বিশ্বসেরা কেমন করলেন? চার রাউন্ডে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ছিলেন ভালোমতই। পার-এর চেয়ে আট শট কম খেলে। লিডার বোর্ডের নয়ে শেষ কোরেছেন।

যুক্তরাষ্ট্র কিংবদন্তী গলফার টাইগার উডস জানান, জানতাম চার রাউন্ডে খেলতে পারব। এটা চিন্তা ছিল না, ভাবছিলাম স্কোর কেমন হয়? কেমন বোধ করি, সেটা বুঝতে চাইছিলাম। বেসিক প্ল্যানিংয়ে থাকতে চেয়েছি। চোট থেকে ফিরে প্রথম খেললাম, এটা জরুরি ছিল।

ছেলে চার্লি মেসি ভক্ত। ফুটবল টানে তাকে, টাইগার উডসও সন্তানদের নিয়ে ছুটে গেছেন বার্সেলোনায়। টেনিসেও আগ্রহ আছে। কিন্তু মেসি-নাদালরা যানেন, টাইগার উডসকে। জানেন তার জনপ্রিয়তা কতটা। উডস যে তাদের কাছে পরম পাওয়া।

ফিরেছেন, এবার টপ টুর্নামেন্টের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুতি চলবে। সামনের এপ্রিলে প্রথম মেজর চ্যাম্পিয়নশিপ। ওখানে পুরোনো উডসকে দেখতে চাইবে সবাই।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here