এখন পোস্ট অফিসের মাধ্যমে দুই টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা যাবে। মোবাইল ব্যবহার করে এ অ্যাকাউন্ট খোলা এবং টাকা (ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস) ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকরা। তবে অ্যাকাউন্টে সব সময় সর্বনিম্ন দুই টাকা জমা রাখতে হবে।

বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘ডাক টাকা’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই সেবার উদ্বোধন করেন তিনি।

এ সময় সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, যারা ব্যাংকিং সুবিধার বাইরে আছেন (আন ব্যাংকড) তাদের ব্যাংকিং সুবিধার আওতায় আনতে ‘ডাক টাকা’ চালু করা হলো। ডাক টাকা সেবা চালুর ফলে এখন থেকে ব্যাংকিংয়ের বাইরে থাকা গ্রামের মানুষ ভালোভাবে ব্যাংকিং সুবিধা পাবেন।

জয় বলেন, ডাক বিভাগের এ সেবা উদ্বোধন করতে পেরে আমি অনন্দিত। আমি আরও আনন্দিত যে, সর্বনিম্ন দুই টাকা দিয়ে ব্যাংক অ্যাকউন্ট খোলা ও অ্যাকউন্ট পরিচালনা করা যাবে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ প্রক্রিয়া শুরু করেছিল ৫ টাকা দিয়ে।

তিনি আরো বলেন, গ্রামে বা ইউনিয়ন পর্যায়ে সাধারণত ব্যাংকের শাখা থাকে না। ব্যাংক একাউন্ট করতে অনেক টাকা ও সময় লাগে। এ কারণে ডাকঘরের মাধ্যমে এ সেবা গ্রামের মানুষের কাছে পৌঁছানো হচ্ছে যাতে তারা গ্রামে বসে টাকা লেনদেন, ভাতা পাওয়া ও খরচ করতে পারেন।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ডাক বিভাগ সম্পূর্ণ ডিজিটাল হবে। আমাদের লক্ষ্য ২০১৮ সালের মধ্যে তিন কোটি আনব্যাংকড মানুষকে এই সেবার আওতায় আনা।

অনুষ্ঠানে টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মর্জিনা বেগমের মোবাইল নম্বর দিয়ে হিসাব খুলে এই সেবার উদ্বোধন করা হয়। মর্জিনা বেগমের কোনও ব্যাংক হিসাব নেই।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন অতিরিক্ত সচিব মো. সাইফুল ইসলাম।

ডাক টাকায় কারিগরি সহযোগিতা দিচ্ছে ডিমানি ও আইটিসিএল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here