ওয়েলিংটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের পর হ্যামিল্টন টেস্টেও দাপুটে জয় পেয়েছে নিউজিল্যান্ড। রস টেইলরের রেকর্ড সেঞ্চুরি ছোঁয়ার ম্যাচে ২৪০ রানে জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা। আর এ জয়ে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে ক্যারিবীয়দের ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করল নিউজিল্যান্ড।

তৃতীয় দিনেই হ্যামিল্টন টেস্ট জয়ের সুবাস পাচ্ছিল নিউজিল্যান্ড। ৪৪৪ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে হলে রান তাড়া করার রেকর্ড গড়েই জিততে হতো সফরকারীদের। শেষ পর্যন্ত তা আর হতে দেননি ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদি ও নিল ওয়াগনার। দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের ২০৩ রানে অলআউট করে দিয়েছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড।

কিউইদের জয়টাতে ভূমিকা ছিল তাদের বোলারদের মিলিত প্রচেষ্টার ফসল। টপ অর্ডারটা ধসিয়ে দেন পেসার বোল্ট আর সাউদি, এরপর নিল ওয়াগনার আঘাত হানেন মিডল অর্ডারে। লেজটা ছেঁটে দিয়ে ক্যারিবীয়দের ইনিংস শেষ করেন স্পিনার মিচেল স্যান্টনার। তাতেই ২৪০ রানের জয় পায় নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় ইনিংসে ক্যারিবীয়রা এতটাই অসহায় ছিল যে তাদের একমাত্র লড়াকু জুটিটি আসে ষষ্ঠ উইকেটে। রোস্টন চেজ আর রেমন রিফার মিলে ৭৮ রান যোগ করেন।

ধীরে ধীরে পোক্ত হওয়া এই জুটিকে দলীয় ১৫৮ রানে ভাঙেন ওয়াগনার। চেজকে ৬৪ রানে সাজঘরে ফেরান। তাতেই শেষ হয় প্রতিরোধ দেওয়া এই জুটি। চেজের ৯৮ বলের ইনিংসে ছিল ৮টি চার। এর কিছুক্ষণ পর রিফারকেও সাজঘরে ফিরিয়ে ক্যারিবীয়দের আনুষ্ঠানিক প্রতিরোধটা গুঁড়িয়ে দেন সাউদি।

এর আগে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের গতি দিয়ে কাবু করে ফেলেন ওয়াগনার। একের পর একে ডেলিভারি দিয়ে ব্যাটসম্যানদের আঘাত করে যাচ্ছিলেন। কোনও বল পাঁজরে লাগছিল তো কোনওটা হাতে। তেমনই এক ডেলিভারিতে হাতে আঘাত নিয়ে ৫ রানে মাঠ ছান অ্যাম্ব্রিস। এই ব্যাটসম্যান পরে আর মাঠেই নামেননি। তাই ৯ উইকেট পতনের পর আনুষ্ঠানিকভাবেই শেষ হয় ক্যারিবীয়দের দ্বিতীয় ইনিংস।

কিউইদের হয়ে এই ইনিংসে ৪২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন নিল ওয়াগনার। দুটি করে নেন সাউদি, বোল্ট ও গ্র্যান্ডহোম। ম্যাচসেরা হন রেকর্ড ছোঁয়া রস টেইলর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৩৭৩

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৬৬.৫ ওভারে ২২১(আগের দিন ২১৫/৮) (রেইফার ২৩*, কামিন্স ১৫, গ্যাব্রিয়েল ০; সাউদি ২/৩৪, বোল্ট ৪/৭৩, ডি গ্র্যান্ডহোম ২/৪০, ওয়েগনার ২/৭৩)।

নিউজিল্যান্ড ২য় ইনিংস: ৭৭.৪ ওভারে ২৯১/৮ (ডি.) (রাভাল ৪, ল্যাথাম ২২, উইলিয়ামসন ৫৪, টেইলর ১০৭*, নিকোলস ৫, স্যান্টনার ২৬, ডি গ্র্যান্ডহোম ২২, ব্লান্ডেল ১, ওয়েগনার ৮, সাউদি ২২*; গ্যাব্রিয়েল ২/৫২, রোচ ০/২৮, কামিন্স ৩/৬৯, রেইফার ১/৫২, ব্র্যাথওয়েট ০/৩৩, চেইস ২/৫১)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস: ২০৩ (ব্র্যাথওয়েট ২০, পাওয়েল ০, হেটমায়ার ১৫, হোপ ২৩, চেজ ৬৪, রেইফার ২৯, রোচ ৩২, কামিন্স ৯, গ্যাব্রিয়েল ০; সাউদি ২/৭১, বোল্ট ২/৫২, ওয়েগনার ৩/৪২, স্যান্টনার ২/১৩)।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here