বিদ্যা বালন, মাধুরী দীক্ষিতকে মীনাকুমারীর বায়োপিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের জন্যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কোনও এক অজ্ঞাত কারণে সেই ছবিতে অভিনয়ে রাজি হননি এই দুই তারকা অভিনেত্রী।

ছবির পরিচালক করন রাজদান জানিয়েছেন, অথচ সানি লিওনকে প্রস্তাব না দেওয়া সত্ত্বেও, তিনি নিজে থেকে এগিয়ে এসেছেন এই প্রজেক্টে অভিনয়ের জন্যে। অভিনেত্রী নিজে থেকেই পরিচালকের কাছে চিত্রনাট্যের বিষয় জানতে চান।

সানির বাড়িতে গিয়ে চিত্রনাট্য শোনালে, ছবিতে অভিনয় করতে এককথায় রাজি হয়ে যান সানি। যদিও, পরিচালক মনে করেন, অভিনেত্রী মোটেই এই ছবির জন্যে সঠিক চয়েস নন, কিন্তু তার আগ্রহ পরিচালককে অন্যভাবে ভাবাচ্ছে।

সূত্রের খবর, বিদ্যা ছবিটি ফিরিয়ে দিয়েছেন, কারণ তিনি কোনও হাল্কা মেজাজের ছবিতে অভিনয় করতে আগ্রহী এই সময়। ষাটের দশকের এই অভিনেত্রীর জীবন শেষ হয়ে যায় মাত্র ৩৮ বছর বয়সে। মদ্যপানই শেষ করে দেয় এই অভিনেত্রীকে।

ট্র্যাজেডি ছিল মীনা কুমারীর সঙ্গী। টিনসেল টাউনে মীনাকুমারীকে সবাই ট্র্যাজেডি কুইন বলেই চিনতেন। অভিনেত্রীর কয়েকটি মনে দাগ কেটে যাওয়া ছবির মধ্যে রয়েছে ‘সাহেব বিবি অউর গোলাম’, ‘পাকিজা’, ‘মেরে আপনে’, ‘আরতি’, ‘বাইজু বাওরা’, ‘পরিণীতা’ এবং ‘দিল আপনা অউর প্রীত পরাই’।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here