দলে ছিলেন না ফর্মে থাকা সেন্টার ফরোয়ার্ড আলেভেরো মোরাতা। তারপরেও তাদের আটকাতে পারেনি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে নবাগত দল হাডার্সফিল্ড টাউন। একটি গোল হজম করলেও তাদের ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছে চেলসি। এই জয়ে অবশ্য শীর্ষ চারে থাকতে পয়েন্ট ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নিয়েছে ব্লুজরা।  দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমান পয়েন্ট অর্জন করেছে চেলসি।

ম্যাচের ৫০ মিনিট পেরুতেই চেলসিকে তিন গোলে এগিয়ে দেন তিমোয়ে বাকাইয়োকো, উইলিয়ান আর পেদ্রো। শেষ পর্যন্ত বদলি লুরেন্ত দেপোয়েত্রের গোলে ব্যবধান কমানোর সান্ত্বনা নিয়ে মাঠ ছাড়ে হাডার্সফিল্ড।

এই জয়ে চেলসির পয়েন্ট দাঁড়ালো ৩৫। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডেরও পয়েন্ট সমান। আর ব্লুসদের থেকে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে তালিকার শীর্ষে আছে ম্যানচেস্টার সিটি।

শনিবার ওয়েস্ট হাম ইউনাইটেডের বিপক্ষে ১-০ গোলে হারের পর চেলসির জয়ের ধারায় ফেরা খুব জরুরী ছিল। সেই জয়টা এলো অনায়াসেই।

হাডার্সফিল্ডের বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধেই দুই গোলে এগিয়ে যায় চেলসি। ম্যাচের ২০তম মিনিটে ফরাসি মিডফিল্ডার তিমোয়ে বাকাইয়োকো গোল করেন। এরপর ৪৩তম মিনিটে দুর্দান্ত এক হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার উইলিয়ান।

দ্বিতীয়ার্ধের দাপট অব্যাহত রাখে চেলসি। ম্যাচের ৫৫তম মিনিটে দলের পক্ষে তৃতীয় গোলটি করেন স্পেনের ফরোয়ার্ড পেদ্রো। এই গোলেও অবদান ছিল উইলিয়ানের। তিনিই পেদ্রোকে বলের জোগান দেন।

তিন গোলে পিছিয়ে পড়া হাডার্সফিল্ডের হারের ব্যবধান কমানো ছাড়া আর কোনো কিছু করার ছিল না। শেষ পর্যন্ত সেই কাজটি করে দেন বেলজিয়ামের মিডফিল্ডার দিপোয়েত। যোগ করা সময়ে একটি গোল করেন তিনি।

দিনের অপর ম্যাচে স্টোক সিটিকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে বার্নলি।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here