বাংলাদেশ সন্ত্রাসী হামলার উচ্চ ঝুঁকিতে আছে বলে মনে করছে অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশে অবস্থানরত পশ্চিমা নাগরিকদের ওপর হামলার পরিকল্পনা হতে পারে— এমন নির্ভরযোগ্য তথ্যের ভিত্তিতে নিজেদের নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমণের পরিকল্পনা পুনর্বিবেচনা করতে বলেছে দেশটি। আর জনবহুল স্থানে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা রয়েছে উল্লেখ করে নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমণে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাজ্য।

অস্ট্রেলিয়া সরকারের ডিপার্টমেন্ট অব ফরেন অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ট্রেডের ভ্রমণবিষয়ক পরামর্শ ও তথ্যসেবা স্মার্ট্রাভেলারের ওয়েবসাইটে গতকাল হালনাগাদ সতর্কতা বার্তায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলার উচ্চমাত্রার ঝুঁকি রয়েছে। বাংলাদেশে অবস্থানরত পশ্চিমাদের ওপর সন্ত্রাসীরা হামলার পরিকল্পনা করছে বলে নির্ভরযোগ্য তথ্য রয়েছে। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস উদযাপন সন্ত্রাসীদের জন্য হামলার সুযোগ তৈরি করতে পারে। সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি ও অনিশ্চিত নিরাপত্তা পরিস্থিতির কারণে নাগরিকদের বাংলাদেশ ভ্রমণের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে বলা হয়েছে সতর্কতায়। তবে কেউ যদি ভ্রমণ করেনও সেক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

সতর্কতা বার্তায় বেশ কয়েকটি ঘটনার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ২৪ মার্চ ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে একটি তল্লাশিচৌকিতে আত্মঘাতী বোমা হামলা, ২০১৬ সালের ১ জুলাই হলি আর্টিজান হামলাসহ ২০১৫ সালের বেশ কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলার কথা রয়েছে।

হালনাগাদ ভ্রমণ সতর্কতা বার্তায় যুক্তরাজ্য বলেছে, আগামীতে জনসমাগম লক্ষ্য করে সন্ত্রাসী হামলার ঝুঁকি রয়েছে। বিদেশী নাগরিকরাও আক্রমণের সরাসরি লক্ষ্য হতে পারেন। তবে কেউ ভ্রমণ করলেও বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যবস্তু হতে পারে এমন স্থানগুলোও এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে। ব্রিটিশ সরকারের সতর্কতা বার্তায়, বিশেষত পার্বত্য চট্টগ্রাম ভ্রমণ পরিহার করতে বলা হয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here