প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত মোট ৯ লাখ ৭৩ হাজার বাংলাদেশী কর্মীর কর্মসংস্থান হয়েছে। এর মধ্যে ১ লাখ ১৮ হাজার নারী কর্মী রয়েছেন। যা এ যাবৎ কালের সর্বোচ্চ সংখ্যক।

আজ ১৭ ডিসেম্বর প্রবাসী কল্যাণ ভবনে ‘আন্তর্জাতিক অভিবাসন দিবস ২০১৭’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সস্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। এবার আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবসের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘ নিরাপদ অভিবাসন যেথানে টেকসই উন্নয়ন সেখানে’।

মন্ত্রী বলেন, বছর শেষে ১০ লাখেরও বেশি কর্মীর কর্মসংস্থান হবে। আমরা নারী কর্মীদের অধিকার সুরক্ষার পাশাপাশি অভিবাসনকে নারীর ক্ষমতায়নে রূপান্তরিত করার লক্ষ্যে কাজ করছি।

তিনি বলেন, প্রবাসী প্রেরিত রেমিটেন্স জাতীয় উন্নয়নে অগ্রতিকে আরও ত্বরান্বিত করছে। আপনারা জানেন সম্প্রতি বাংলাদেশ অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিবেচনায় নিন্ম-মধ্যম আয়ের দেশে  উন্নীত হয়েছে। আমাদের এ সাফল্যে প্রবাসী কর্মীদের প্রেরিত রেমিটেন্স অনেক বেশি অবদান রাখছে।

তিনি আরও জানান, শ্রমবাজার ধরে রাখাসহ আমরা নতুন নতুন সম্ভাবনাময় শ্রম বাজার অনুসন্ধানে কাজ করছি। ইতোমধ্যে নতুন শ্রমবাজারের সন্ধানে ৫২ টি দেশের শ্রম বাজার নিয়ে গবেষণা কার্যক্রম সমাপ্তির পথে। আমরা আশা করছি এখানে আমাদের নতুন সম্ভাবনা তৈরি হবে।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা অনুযায়ী বিদেশগামী বাংলাদেশি কর্মীদের শতভাগ বীমার আওতায় আনয়নের নিমিত্তে এ মন্ত্রণালয় কর্তৃক এর একটি নীতিমালা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

এছাড়া প্রবাসীদের বিভিন্ন সুবিধা অসুবিধা জানার জন্য আজ সকালে এ মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব ভবনে একটি হটলাইন চালু করা হয়েছে। এখানে দেশে ও দেশের বইরের কর্মীরা তাদের বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ করতে পারবেন। এদিকে আজ সকালে প্রবাসী কল্যাণ নিজ ভবনে একটি স্থায়ী জাপানিজ ভাষা প্রশিক্ষণ সেন্টারের উদ্ধোধন করছেন। অভিভাসনে পিছিয়ে পড়া ২২টি জেলার প্রশিক্ষণার্থীদের নিয়ে আপাতত প্রশিক্ষণটি শুরু করা হয়েছে।

সংবাদ সস্মেলনে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here