ইসরাইল অধিকৃত জেরুজালেম শহর ফিলিস্তিন বিরোধী ষড়যন্ত্রের কবরে পরিণত হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের নেতা ইসমাইল হানিয়া।

তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, প্রতিরোধ আন্দোলনের মাধ্যমে ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জাতির চূড়ান্ত বিজয় হবে।

শুক্রবারের ইসরাইল বিরোধী ইন্তিফাদা গণআন্দোলনে শহীদ চার ফিলিস্তিনির দাফন শনিবার গাজা উপত্যকা ও পশ্চিম তীরে অনুষ্ঠিত হয়। এদের মধ্যে গাজায় শহীদ হন ইব্রাহিম আবু সুরাইয়া নামের এক যুবক এবং পশ্চিম তীরে নিহত হন অপর তিন ফিলিস্তিনি তরুণ।

গাজায় শহীদ ফিলিস্তিনির জানাযার নামাজের আগে এক ভাষণে ইসমাইল হানিয়া আরো বলেন, “অতীতের শহীদদের তুলনায় আমাদের আজকের শহীদদের যেমন পার্থক্য রয়েছে তেমনি আমাদের বর্তমান প্রতিরোধ যুদ্ধের সঙ্গে অতীতের প্রতিরোধ যুদ্ধেরও কোনো মিল নেই। আমাদেরকে প্রতিরোধ সংগ্রাম করে ইসরাইলের রাতের ঘুম হারাম করে দিতে হবে।”

তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিতর্কিত ঘোষণার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে শুক্রবার শাহাদাতের অমীয় সুধা পান করে চার ফিলিস্তিনি শহীদ প্রমাণ করেছেন, ফিলিস্তিনি জাতি তাদের ন্যায়সঙ্গত অধিকারের ব্যাপারে কোনো ছাড় দিতে রাজি নয়।

সারাবিশ্বের প্রতিবাদ উপেক্ষা করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেম শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। তার ওই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ফিলিস্তিনে তীব্র আন্দোলন চলছে।

এ সম্পর্কে হামাস নেতা হানিয়া আরো বলেন, “জেরুজালেম যে ফিলিস্তিনিদের সম্পদ তা নিয়ে কেউ বিতর্ক তুলতে পারবে না। কাজেই গোটা জেরুজালেমের প্রতি ইঞ্চি ভূমি মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আমাদের প্রতিরোধ সংগ্রাম চলবে।”

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here