ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন আগামী বছর ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ নাগাদ অনুষ্ঠিত হবে—আর জানুয়ারি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ঘোষণা করা হবে নির্বাচনী তফসিল।

রোববার নির্বাচন কমিশনে-ইসি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান নির্বাচন কমিশনের ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলাল উদ্দীন আহমেদ।

তিনি আরো জানান- উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সীমানা নির্ধারণ নিয়ে যেসব জটিলতা ছিল এখন আর তা নেই সেসব ওয়ার্ডে একইসঙ্গে কাউন্সিলর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

একই সঙ্গে ডিএনসিসিতে নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ও সংরক্ষিত ৬টি ওয়ার্ডে এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে যুক্ত হওয়া সমান সংখ্যক ওয়ার্ডে নির্বাচন হবে বলে জানান তিনি।

সচিব বলেন, কমিশন সভায় এ নির্বাচন নিয়ে পর্যালোচনা হয়েছে— কমিশন মনে করছে, এ নির্বাচন অনুষ্ঠানে কোনও আইনি জটিলতা নেই। যার কারণে কমিশন এ নির্বাচন অনুষ্ঠানের তফসিলের নির্দশনা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু একটি পদে উপ নির্বাচন এবং কাউন্সিলর নির্বাচনটি পৃথক দুটি সিটি করপোরেশনের, এ কারণে পৃথক তিনটি তফসিল দেয়া হবে— তবে ভোটগ্রহণ একই দিনে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে ভারপ্রাপ্ত সচিব বলেন, জানুয়ারিতে যারা নতুন ভোটার হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হবেন তারা এ নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। তবে নতুন ভোটারদের কেউ নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না।

সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের মেয়াদ কতোদিন হবে এমন প্রশ্নের জবাবে হেলাল উদ্দীন বলেন, সাধারণ ওয়ার্ডে যারা নির্বাচিত হবে তাদের মেয়াদ চলমান সিটি করপোরেশনের মেয়াদের সঙ্গে শেষ হয়ে যাবে। উপ নির্বাচনে মেয়রের যে মেয়াদ হবে সাধারণ নির্বাচনে নির্বাচিত কাউন্সিলরের মেয়াদ একই সমান হবে।

এর আগে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সভাপতিত্বে কমিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গত ৩০ নভেম্বর লন্ডনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন ঢাকা উত্তরের মেয়র আনিসুল হক। তারপর এ পদ শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here