গত নভেম্বরে সান সিরোতে গিয়েছিলেন কাকা। সাবেক ক্লাব এসি মিলানের সদর দফতরে গেছেন এবং দেখা করেছিলেন নতুন মালিকদের সঙ্গে। আবারও ইতালিয়ান জায়ান্টদের জার্সি পরতে যাচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান প্লে মেকার, এমন গুঞ্জন উঠেছিল। কিন্তু সব গুঞ্জন থামিয়ে দিলেন তিনি ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে।

এ বছরের শুরুতে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় ওরল্যান্ডো সিটি থেকে বিদায় নেন কাকা। এরপর ছিলেন গন্তব্যহীন। অবশেষে রবিবার টুইটার ও ইনস্টাগ্রামের পোস্টে জানিয়ে দিলেন বিদায়ের খবর, ‘সবকিছু ছিল আমার কল্পনার বাইরে। ধন্যবাদ। আমার পরবর্তী পথচলার জন্য আমি প্রস্তুত।’

৩৫ বছর বয়সী কাকার ক্যারিয়ার ২০০১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত। ব্রাজিলের সঙ্গে একটি বিশ্বকাপ জিতেছিলেন তিনি। এছাড়া এসি মিলানের হয়ে সিরি ‘এ’ ও চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপাও হাতে নেওয়া হয়েছে তার। ২০০৭ সালের ব্যালন ডি’অরও পেয়েছিলেন কাকা, তারপর থেকেই এ পুরস্কার নিয়ে চলছে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির রাজত্ব।

ফুটবলে কাকার শুরু ব্রাজিলিয়ান জায়ান্ট সাও পাউলোতে। ২০০৩ সালে যোগ দেন মিলানে। এরপরই হয়ে ওঠেন বিশ্ব তারকাদের একজন। ২০০৪ সালে মিলানকে লিগ শিরোপা জেতান এবং ২০০৭ সালে চ্যাম্পিয়নস লিগে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পান তিনি।

এরপর ম্যানসিটির ১০ কোটি পাউন্ডের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন কাকা। তবে মিলানের সেই সফলতা ধরে রাখতে পারেননি সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। যদিও ২০১২ সালে লা লিগা শিরোপা হাতে নেন তিনি। ২০১৩-১৪ মৌসুমে মেজর সকার লিগের নতুন ক্লাব ওরল্যান্ডোতে চুক্তি করেন কাকা। তবে সাও পাউলোতে এক মৌসুম ধারে খেলে ২০১৫ মৌসুমে ওরল্যান্ডোর জার্সি পরেন তিনি। কিন্তু ইনজুরি ও ফর্মহীনতায় গত মৌসুমে কেবল ১৮ ম্যাচে একাদশে ছিলেন কাকা।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here