অক্টোবরে বাংলাদেশের সাথে খেলা দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিকে চোট পাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত খেলেননি একটি ম্যাচও। এমনকি নিজেদের দেশের কুড়ি ওভারের ফ্র্যাঞ্চাইজি লীগ রাম-স্লাম টুর্নামেন্ট থেকেও নিজেকে সরিয়ে রাখেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। তাই শঙ্কা রয়েছে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শুরু হতে যাওয়া টেস্ট নিয়েও।

দক্ষিণ আফ্রিকার ঐতিহ্যবাহী বক্সিং ডে টেস্টে এবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে লড়বে স্বাগতিক দল। আইসিসির বিশেষ অনুমতি সাপেক্ষে ৪ দিনের এই টেস্ট ম্যাচে না খেলার সম্ভাবনাই বেশি ডু প্লেসিসের।

চোটের ছয় সপ্তাহ বিশ্রাম শেষে মাঠে ফেরার অপেক্ষায় থাকলেও দল তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাচ্ছেনা কেননা এই টেস্টের পরেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে মোকাবেলা করতে হবে ভারতের বিপক্ষে। এছাড়া মার্চে অস্ট্রেলিয়ার সাথেও আছে ঘরের মাঠে চার টেস্টের লম্বা এক সিরিজ। সেকারণেই অধিনায়ককে সম্পূর্ণ সুস্থ রাখতে বোর্ড চাচ্ছে এই টেস্টে বিশ্রাম দিতে।

দক্ষিণ আফ্রিকার দলের ম্যানেজার মোহাম্মদ মোসাজি বলেন, ‘ফাফ কে আরেকটা সপ্তাহ বিশ্রাম দিতে চাচ্ছি। সামনে অনেক লম্বা সময় ধরে আমাদের কঠিন অনেকগুলো ম্যাচ খেলতে হবে। তাই এখনই তাকে নামিয়ে দিয়ে কোনো বোকামি করতে চাচ্ছিনা।‘

২৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া ৪ দিনের এই টেস্টে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নেতৃত্ব যেতে পারে ডিন এলগারের কাঁধে। প্রোটিয়া দলে ডেইল স্টেইন আর ক্রিস মরিসের ফেরার সম্ভাবনা থাকলেও এখনও মর্নে মরকেলের ফেরার সম্ভাবনা নেই বলেই জানালেন প্রোটিয়া ম্যানেজার। যদিও তিন দিনের একটি ম্যাচে ২০ ওভার বোলিং করে ৭ উইকেট নিয়েছেন মরকেল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here