রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, ফিলিস্তিনের বায়তুল মুকাদ্দাস ইস্যুতে সৃষ্ট জটিলতা নিরসন ও পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য মস্কো সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে বায়তুল মুকাদ্দাস ইস্যুতে মিশরের তোলা একটি প্রস্তাবে আমেরিকা ভেটো দেয়ার একদিন পর গতকাল (মঙ্গলবার) ল্যাভরভ একথা বলেছেন।

ফিলিস্তিনি স্বশাসন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের উপদেষ্টা নাবিল সাথের সঙ্গে বৈঠকে ল্যাভরভ আরো বলেন, “কোনো সন্দেহে নেই যে, বায়তুল মুকাদ্দাসকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে মস্কো সতর্ক রয়েছে।” রুশ মন্ত্রী বলেন, “ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে আমাদের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের টেলিফোন আলাপে মস্কোর অবস্থান পরিষ্কার হয়ে উঠেছে।”

মার্কিন ভেটো প্রসঙ্গে ল্যাভরভ বলেন, এটা দুঃখজনক ঘটনা এবং সারা বিশ্বের সঙ্গে মার্কিন দৃষ্টিভঙ্গির সাংঘর্ষিক অবস্থান ফুটে উঠেচে। তিনি তার ভাষায় বলেন, ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে নতুন করে শান্তি আলোচনা শুরুর জন্য মস্কো চেষ্টা শুরু করবে।

গত ৬ ডিসেম্বর পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাস শহরকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্বীকৃতি দেয়ার বিষয়টি বাতিলের দাবি জানিয়ে ফিলিস্তিন ও মিশরের যৌথ প্রচেষ্টায় একটি এ প্রস্তাব তৈরি করা হয় এবং সোমবার তা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে তোলা হয়েছিল। কিন্তু মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালির ভেটোর কারণে প্রস্তাবটি পাস হতে পারে নি। নিরাপত্তা পরিষদের বাকি ১৪ সদস্য প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়। ভেটো দেয়ার পরপরই ফিলিস্তিন সরকার মার্কিন এ পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা জানায়

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here