জন্মদিন উদযাপন করতে আর কি কিছু লাগে! একটি গোল বানিয়ে দিলেন, করলেনও একটা। মুগ্ধকর পারফরম্যান্স করে প্যারিস সেন্ত জার্মেইকে জিতিয়ে দিনটা স্মরণীয় রাখলেন কাইলিয়ান এমবাপে।

কাঁয়ের বিপক্ষে পার্ক ডি প্রিন্সেসে ৩-১ গোলে জিতলো পিএসজি। বুধবার লিগ ওয়ানে ১৬তম জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ আসনটি আরও মজবুত করলো উনাই এমেরির শিষ্যরা। ৯ পয়েন্টে এগিয়ে থেকে এক নম্বরে তারা। ১৯ ম্যাচ শেষে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে মোনাকোর কাছ থেকে শিরোপা কেড়ে নেওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে তারা। সমান ৪১ পয়েন্ট নিয়ে দুই ও তিনে মোনাকো ও লিঁও।

বুধবার ১৯তম জন্মদিনে এমবাপে শুরুতেই দেখান ঝলক।

লিগে আগের ম্যাচে জোড়া গোল করা দলের সেরা তারকা নেইমার এদিন ঘরের মাঠ পার্ক দেস প্রিন্সেসে স্কোর করতে পারেননি। ভাগ্য বিরূপ না হলে অবশ্য গোল পেতে পারতেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই গোল পেতে পারত পিএসজি। হাভিয়ের পাস্তোরের বাড়ানো বল ধরে একা ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন এমবাপে। তাকে ঠেকাতে এগিয়ে আসা গোলরক্ষক পিছলে পড়ে যান; কিন্তু ফাঁকা জাল পেয়েও উড়িয়ে মারেন ফরাসি ফরোয়ার্ড।

ম্যাচের ২১ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন উরুগুইয়ান তারকা স্ট্রাইকার কাভানি। এমবাপের ক্রস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে বুক দিয়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে লক্ষ্যে শট নেন কাভানি। চলতি লিগে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৯টি গোল করলেন।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৭ মিনিটে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এমবাপ্পে। এদিন ১৯ বছরে পা দেওয়া এ তরুণ লিগে অষ্টম গোল করে জন্মদিনটা ভালই উদযাপন করলেন। আর ৮১ মিনিটে দলের শেষ গোলটি করে জয় নিশ্চিত করে ফেলেন স্প্যানিশ ফুটবলার উরি।

ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে অবশ্য পেনাল্টি থেকে একটি গোল করে সেনের হয়ে ব্যবধান কমান ইভান সান্তিনি। কিন্তু ৩-১ ব্যবধানের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে এমেরির শিষ্যরা।

এছাড়া ঘরের মাঠে রেনকে ২-১ গোলে হারিয়েছে মোনাকো। আরেক ম্যাচে তুলুজের মাঠে একই ব্যবধানে জিতেছে লিওঁ।

লিগে ১৯ ম্যাচে ১৬ জয় ও দুই ড্রয়ে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে বছর শেষ করল পিএসজি। মোনাকো ও লিওঁর পয়েন্ট সমান ৪১।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here