সম্প্রীতি বাংলাদেশের আবহমানকালের ঐতিহ্য। এখানে সব ধর্মের মানুষ ভালোবাসা ও সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ। বললেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

সোমবার বঙ্গভবনে বড়দিন উপলক্ষে খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

আবদুল হামিদ বলেন, খ্রিস্টধর্মের প্রবর্তক যিশুখ্রিস্ট ছিলেন মুক্তির দূত ও আলোরদিশারি। পৃথিবীকে শান্তির আবাসভূমিতে পরিণত করতে তিনি খ্রিস্টধর্মের সুমহান বাণী প্রচার করেন।

পোপ ফ্রান্সিসের বাংলাদেশ সফরের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই বছর বাংলাদেশে বড়দিন উদযাপন অন্য বছরের তুলনায় আরো বেশি আনন্দময় ও তাৎপর্যপূর্ণ।

রাষ্ট্রপতি বলেন, পোপ ফ্রান্সিস প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সফর করেছেন। তিনি বিভিন্ন সম্প্রদায়ের জনগণের সঙ্গে কথা বলেছেন। আমার বিশ্বাস, তার এই সফর বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য আরো সমুজ্জ্বল করবে।

বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য আরো সুদৃঢ় করতে সবাইকে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বিদ্যমান সম্প্রীতির এই ঐতিহ্য আরো সুদৃঢ় করতে সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে অবদান রাখতে হবে।

এসময় বাংলাদেশের কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও, ডিপ্লোম্যাটিক কোরের ডিন ভ্যাটিকানের রাষ্ট্রদূত জর্জ কোচেরিসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন রাষ্ট্রপতি ও তার স্ত্রী রাশিদা খানম।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here