সিরিজ নিশ্চিত করেছিল ভারত আগের ম্যাচেই। মুম্বাইয়ের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিকরা নেমেছিল শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশ করার লক্ষ্যে। দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৫ উইকেটের জয়ে সেই লক্ষ্য পূরণ করেছে ভারত। নির্ধারিত ২০ ওভারে শ্রীলঙ্কার ৭ উইকেটে করা ১৩৫ রান স্বাগতিকরা ৫ উইকেট হারিয়ে টপকে যায় ৪ বল হাতে রেখে।

ভারতের চমৎকার বোলিংয়ে শুরু থেকেই চাপে ছিল টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা শ্রীলঙ্কা। মাত্র ১ রান করে জয়দেব উনাড়কাটের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নিরোশান ডিকবিলা। অভিষিক্ত ওয়াশিংটন সুন্দরের শিকার হয়ে খানিক পর তার পথ ধরেন কুশল পেরেরাও (৪)। আর ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা জয়দেবের দ্বিতীয় শিকার হয়ে উপুল থারাঙ্গা (১১) আউট হলে ১৮ রানেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানকে হারায় শ্রীলঙ্কা।

সাদিরা সামারাবিক্রমা ও অসেলা গুনারত্নে চেষ্টা চালিয়ে গেছেন দলকে টেনে তোলার। দাঁড়িয়েও গিয়েছিলেন, যদিও সামারাবিক্রমা ২১ রান করে আউট হলে ভাঙে তাদের জুটি। আর গুনারত্নে করেন দলীয় সর্বোচ্চ ৩৬ রান। শেষ দিকে দাসুন শানাকা ২৯ রান করলে শ্রীলঙ্কার ইনিংস শেষ হয় ১৩৫ রানে।

ভারতের শুরুটাও ভালো ছিল না। মাত্র ৪ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান ওপেনার লোকেশ রাহুল। তবে আগের ম্যাচে টি-টোয়েন্টির দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড ছোঁয়া রোহিত শর্মা ছিলেন চেনা ছন্দে। ‘ঘরের মাঠে’ অবশ্য খুব বেশিদূর যেতে পারেননি, ২০ বলে ২৭ রান করে থামেন ভারতীয় অধিনায়ক। এরপর শ্রেয়ার আইয়ারের ৩০ ও মনিশ পান্ডের ৩২ রানের ওপর ভর দিয়ে জয়ের পথ তৈরি করে ভারত। যে পথে এগিয়ে দিনেশ কার্তিক (১৮*) ও মহেন্দ্র সিং ধোনি (১৬*) নিশ্চিত করেন ভারতের জয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা: ২০ ওভারে ১৩৫/৭ (ডিকভেলা ১, থারাঙ্গা ১১, কুসল পেরেরা ৪, সামারাবিক্রমা ২১, গুনারত্নে ৩৬, গুনাথিলকা ৩, থিসারা ১১, শানাকা ২৯*, দনাঞ্জয়া ১১*; সুন্দর ১/২২, উনাদকাত ২/১৫, সিরাজ ১/৪৫, পান্ডিয়া ২/২৫, কুলদীপ ১/২৬)

ভারত: ১৯.২ ওভারে ১৩৯/৫ (রোহিত ২৭, রাহুল ৪, আয়ার ৩০, পান্ডে ৩২, পান্ডিয়া ৪, কার্তিক ১৮*, ধোনি ১৬*; দনাঞ্জয়া ০/২৭, চামিরা ২/২২, থিসারা ০/২২, প্রদিপ ০/৩৬, শানাকা ২/২৭)

ফল: ৫ উইকেটে জয়ী ভারত

সিরিজ: ৩-০ ব্যবধানে জয়ী ভারত

ম্যাচসেরা এবং সিরিজ সেরা: জয়দেব উনাদকাত।

 

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here