বক্সিং ডে দিনটা কি দুর্দান্তভাবেই না পাড় করল নিউজিল্যান্ড। টেস্টের পর ওয়ানডে সিরিজেও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইট ওয়াশ করে পারফেক্ট ক্রিসমাস পালন করল তারা। মঙ্গলবার ক্রাইস্টচার্চে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে বৃষ্টি আইনে ৬৬ রানের জয় পায় কিউইরা। পুরো সফরে স্বাগতিকদের কোনও রকম চ্যালেঞ্জের মুখেই ফেলতে পারেনি ক্যারিবীয়রা।

বৃষ্টি-বিঘ্নিত ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেই ক্যারিবিয়ান বোলিংয়ের তোপে পড়ে নিউজিল্যান্ড। ২৬ রানের মধ্যে জর্জ ওয়ার্কার, নেইল ব্রুম ও কলিন মুনরোকে হারানোর পর চতুর্থ উইকেটে রস টেলর ও টম ল্যাথাম জুড়ে দেন মূল্যবান ৭৩ রান।

লাথাম ৩৭ করে ফিরে গেলে রস টেলর ও হেনরি নিকোলস ৪ উইকেটে ৯৯ থেকে ১৩১-এ স্কোর টেনে নেন। এরপর দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টি এসে বন্ধ রাখে খেলা।

২৩ ওভারে কিউইদের করা ১৩১ রান বৃষ্টি আইনে বেড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দেয় ১৬৬ রানের নতুন টার্গেট। জবাবে ৯ রানের মধ্যে পাঁচ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ক্যারিবিয়ানরা।

অধিনায়ক জেসন হোল্ডার ৩৪ ও নিকিটা মিলনার ২০ করে হারের ব্যবধানটাই কমাতে পেরেছেন কেবল। ২৩ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৯ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিস গেইলের ফিরিয়েও কিছু করতে পারল না।। এখন তাদের সামনে অপেক্ষা করছে টি-টুয়েন্টি সিরিজ। এই ফরমেটে তারা আবার বিশ্বের চ্যাম্পিয়ন। তাই নিউজিল্যান্ডকে ছোট ঘরানায় কোনও চ্যালেঞ্জ দিতে পারে কিনা অপেক্ষা করছে সেই প্রশ্নও।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড: ২৩ ওভারে ১৩১/৪ (ওয়ার্কার ২, মানরো ২১, ব্রুম ২, টেইলর ৪৭*, ল্যাথাম ৩৭, নিকোলস ১৮*, কট্রেল ২/১৯, হোল্ডার ১/২১, মিলার ১/২৬, গ্যাব্রিয়েল ০/৩৭, নার্স ০/২৬)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: (লক্ষ্য ১৬৬) ২৩ ওভারে ৯৯/৯ (গেইল ৪, ওয়ালটন ০, শেই ২, কাইল ১, মোহাম্মদ ১, হোল্ডার ৩৪, পাওয়েল ১১, নার্স ১, মিলার ২০*, কট্রেল ৩, গ্যাব্রিয়েল ১২*; হেনরি ২/১৮, বোল্ট ৩/১৮, ফার্গুসন ০/২৪, স্যান্টনার ৩/১৫, অ্যাস্টল ১/২৪)

ফল: নিউ জিল্যান্ড ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে ৬৬ রানে জয়ী

সিরিজ: নিউ জিল্যান্ড ৩-০ ব্যবধানে জয়ী

ম্যাচসেরা: রস টেইলর

সিরিজসেরা: ট্রেন্ট বোল্ট।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here