অতিমাত্রায় রক্ষণাত্মক ছিল নিউক্যাসল।  এরপরেও পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটিকে রুখতে পারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত সঙ্গী হয়েছে ১-০ ব্যবধানের হার। এরমধ্য দিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে টানা ১৮তম জয় পেয়েছে জায়ান্টরা।

একমাত্র গোলটি এসেছে প্রথমার্ধের ৩১ মিনিটে। স্টারলিংয়ের পা থেকেই জয় সূচক গোলটি আসে সিটির। অবশ্য শুরুতে চোটের কারণে ভিনসেন্ট কোম্পানিকে হারিয়ে বসে সিটি। তারকা ডিফেন্ডারের জায়গায় পেপ গার্দিওলা উল্টো স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল হেসুসকে নামান। তাতেও অবশ্য হেরফের হয়নি আক্রমণের।

এই জয়ে ১৫ পয়েন্ট ব্যবধান রেখে শীর্ষে থাকলো সিটি। তাদের বর্তমান সংগ্রহ ২০ ম্যাচে ৫৮। সমান ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

এমন ম্যাচে অবশ্য একভাবে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন ম্যানসিটি কোচ গার্দিওলা। কারণ আক্রমণের বদলে রক্ষণের কৌশলে ছিল নিউক্যাসল, ‘আমরা নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টাই করেছি। তবে এটা কঠিন হয়ে দাঁড়ায় যখন অপরপক্ষ খেলতে না চায়। শেষ মুহূর্তে আমরা তাদের ছন্দেই খেলতে বাধ্য হয়েছি।’ অনেক সুযোগ পেলেও ব্যবধান থাকে ১-০। এ নিয়ে গার্দিওলা বলেন, ‘আমরা অনেক সুযোগ তৈরি করেছিলাম। স্কোরটা হতে পারতো ২-০, ৩-০ কিংবা ৪-০।’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here