দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাসটা একদিনে শুরু হয় না। কিভাবে যেন ছোটবেলা থেকেই এই অভ্যাস নিজের মধ্যে চলে আসে। তারপর বড় হয়ে কেউ এই অভ্যাস ছেড়ে দেয়, কেউ আবার বেরুতেই পারে না এই অভ্যাস থেকে। অনেকে দাঁত দিয়ে নখ কাটতে কাটতে আঙুলের চামড়া ও মাংসও তুলে ফেলে। এগুলো আদতে বদ অভ্যাস।

যেকোন বদ অভ্যাস ত্যাগ করা কঠিন। তা ধূমপান হোক অথবা অন্য কোন বদ অভ্যাস। দাঁত দিয়ে নখ কাটার অভ্যাসটিও দূর করা কঠিন হলেও অসম্ভব নয়। কিছু কৌশলে এই বদ অভ্যাস ত্যাগ করা সম্ভব।

১। নখ কেটে ছোট রাখুন। নখ বড় হওয়ার আগে কেটে রাখুন, যাতে দাঁত দিয়ে নখ কাটা সম্ভব না হয়।

২। নখে নেইলপলিশ লাগিয়ে রাখুন। নেইলপিলশের তেতো স্বাদ আপনাকে নখ কাটা থেকে বিরত রাখবে।

৩। প্রতিজ্ঞা করুন আজ থেকে আর নখ কাটবেন না। মনে রাখার জন্য মোবাইলে রিমাইন্ডার দিয়ে রাখুন। কিংবা পড়ার টেবিলে অথবা অফিসের ডেস্কে নোট লিখে রাখুন। এটি নখ না কাটার কথা মনে করিয়ে দেবে।

৪। ক্যালসিয়ামের স্বল্পতা অনেক সময় আপনাকে নখ কাটাতে তাগিদ দিয়ে থাকে। নখ কাটার অভ্যাস দূর করতে প্রতিদিনকার খাদ্য তালিকায় ডিম, দুধ এবং ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার রাখুন।

৫। বাচ্চাদের নখ কাটা অভ্যাস দূর করার জন্য অন্য কোন কাজে ব্যস্ত রাখুন। তা হতে পারে ছবি আঁকা অথবা অন্য কোন কিছু যা হাত এবং মনকে ব্যস্ত রাখবে।

৬। এছাড়া নখে তেল বিশেষত ক্যাস্টর অয়েল লাগিয়ে রাখতে পারেন। ক্যাস্টর অয়েলের আঠালো স্বাদ ও কটু গন্ধ আপনাকে নখ কাটা থেকে বিরত রাখবে।

৭। অভ্যাস ত্যাগের জন্য শিশুকে জোর দেবে না অথবা মারধর করবেন না। বকা অথবা মারধর শিশুকে ওই কাজ করতে আরও বেশি জেদি করে তুলবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here