সিরিয়ায় আফরিন অঞ্চলে মার্কিন মদদপুষ্ট কুর্দি গেরিলাগোষ্ঠী ওয়াইপিজি’র বিরুদ্ধে বিমান হামলা শুরু করেছে তুরস্ক। কয়েক দিন বিরতির পর এ হামলা আবার শুরু করা হলো।

তুর্কি সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, গত মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া হামলায় অন্তত ১৯টি লক্ষ্যবস্তু ধ্বংস করা হয়েছে।  এ বিবৃতির বরাত দিয়ে তুর্কি রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম আন্দালু বলেছে, এ সব লক্ষ্যবস্তুর মধ্যে অস্ত্রাগার, গেরিলাদের আস্তানা এবং সামরিক অবস্থান রয়েছে।

হামলায় ওয়াইপিজি’র ৭ গেরিলা এবং  দুই বেসামরিক ব্যক্তিসহ নিহত হয়েছে। কথিম মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ার অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এ তথ্য দিয়েছে।

প্রধানত ওয়াইপিজিকে লক্ষ্য করে গত মাসের ২০ তারিখে এ হামলা শুরু করেছিল তুরস্ক। ইদলিবে সন্ত্রাসীরা রুশ একটি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার পর হামলা বন্ধ রেখেছিল তুরস্ক। মস্কোকে বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা জোরদারের সুযোগ করে দেয়ার জন্য হামলা বন্ধ রাখা হয়েছিল।

তুরস্ক দাবি করছে তুরস্ক বিরোধী গেরিলাদের সঙ্গে ওয়াইপিজির যোগসাজশ রয়েছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here