চ্যাম্পিয়নস লীগের শেষ ষোল’র ম্যাচে ড্র করেছে জুভেন্টাস-টটেনহ্যাম। গতাকাল রাতে চলতি আসরের প্রথম লেগে ২-২ গোলে ড্র করে তারা। অবশ্য ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের রুখে দিয়েছে টটেনহ্যাম হটস্পার।

মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম লেগের ম্যাচে নিজেদের মাঠে দ্বিতীয় মিনিটেই গোল করে স্বাগতিকদের লিড এনে দেন আর্জেন্টাইন তারকা হিগুয়েইন। মিরালেম পিয়ানিচের ফ্রি কিকে ডি বক্সে বল পেয়ে কোনাকুনি ভলিতে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এই স্ট্রাইকার।

ম্যাচের নবম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হিগুয়েইন। ডি বক্সের ইতালিয়ান উইঙ্গার ফেদেরিকো বের্নার্দেস্কিকে ডি বক্সে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় স্বাগতিক শিবির। স্পট কিক থেকে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন এই তারকা। এদিন ম্যাচে অনুপস্থিত ছিলেন দলের তারকা খেলোয়াড় পাওলো দিবালা।

ম্যাচের ২৬ মিনিটে গোলের সুযোগ পায় কেইন। তবে তার নেয়া হেড ঠেকিয়ে দেন বুফন। পরের মিনিটেই পাল্টা আক্রমণে গোলের সুযোগ পেয়েছিল হিগুয়েইন। তবে গোলরক্ষককে একা পেয়ে শট নিতে দেরি করে ফেলেন এই তারকা।

পিছিয়ে পড়ে একের পর এক আক্রমণ করা টটেনহ্যাম অবশেষে ম্যাচের ৩৫ মিনিটে গোলের দেখা পায়। ডেলে আলির বাড়ানো বল বুফনকে কাটিয়ে কোনাকুনি শটে জালে জড়ান কেইন। লিগে কেইনের এটি সপ্তম গোল।

বিরতির আগে আবারও ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল হিগুয়েইন। ডি বক্সে ঢুকে পড়া ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ডগলাস কস্তাকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু স্পট কিক ক্রসবারে মেরে হ্যাটট্রিকের সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন আর্জেন্টাইন এই তারকা।

বিরতি থেকে ফিরে সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে আক্রমণ চালাতে থাকে কেইন-এরিকসেনরা। ম্যাচের ৭২ মিনিটে গোল করে দলকে সমতা এনে দেন এরিকসেন। প্রায় ২০ গজ দূর থেকে নিচু ফ্রি-কিকে লক্ষ্যভেদ করেন ডেনমার্কের এই মিডফিল্ডার। বাকি সময় আক্রমণ, পাল্টা-আক্রমণে খেলা চললেও কোনো দল আর গোলের দেখা পায়নি। আগামী মাসে ফিরতি পর্বে টটেনহ্যাম হটস্পারের মাঠ ওয়েম্বলিতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here