এক সময়ের ‘প্লেবয়’ খ্যাত পাকিস্তানের সাবেক তারকা ক্রিকেটার ইমরান খান তৃতীয়বারের মতো বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।  ইমরান খান তৃতীয় বিয়েটি করেছেন তাঁর আধ্যাত্মিক ধর্মগুরুকে। তৃতীয় স্ত্রীর নাম বুশরা মানেকা। তিনি দেশটির পাকপাত্তান এলাকার একটি পীর পরিবারের মেয়ে। এই দু’জনের সম্পর্কের বিষয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই আলোচনা চলছিল।

গতকাল রোববার লাহোরে এক ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে তাদের বিবাহ সম্পন্ন হয়। পাকিস্তানের অন্যতম বিরোধী দল তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির (পিটিআই) পক্ষ থেকে দলটির প্রধান ইমরান খানের বিয়ের খবরের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে। অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়েছে বুশরার ভাইয়ের বাড়িতে।  অনেকেই বুশরাকে ডেকে থাকেন ‘বুশরা বিবি’ বা ‘পিংকি পির’ হিসেবে।

ইমরান খানের বয়স ৬৫ বছর। ইমরানের নবপরিণীতা স্ত্রী বুশরার বয়স চল্লিশের ঘরে। তাঁর আগের স্বামীর নাম খাওয়ার ফরিদ মানেকা। সম্প্রতি বুশরার সঙ্গে খাওয়ার ফরিদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকেই গুঞ্জন উঠেছিল যে, তৃতীয়বারের মতো বিয়ে করতে চলেছেন ইমরান খান। সেসময় টুইটারে তেমন কিছুরই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তেহরিক-ই-ইনসাফ নামের রাজনৈতিক দলের প্রধান। বুশরা মানেকাকে যে তিনি নিজের আধ্যাত্মিক গুরু হিসেবে মানেন, সেটাও জানিয়েছিলেন ইমরান।

ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ বনে যাওয়া ইমরানের প্রথম স্ত্রী জেমাইমরা গোল্ডস্মিথ। ১৯৯৫ সালে ব্রিটিশ ধনকুবের পরিবারের জেমাইমারকে বিয়ে করেছিলেন ইমরান খান। নয় বছর পর ২০০৪ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ ঘটে।  এরপর ২০১৫ সালে ইমরান বিবাহবন্ধনে জড়িয়েছিলেন টিভি উপস্থাপিকা রেহাম খানের সঙ্গে। কিন্তু এ বিয়ে টেকে মাত্র ১০ মাস। এরপর তৃতীয়বারের মতো ইমরান বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন নিজের আধ্যাত্মিক ধর্মগুরুর সঙ্গে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here