অমর একুশে পালন করছেন দেশবাসী— বিনম্র শ্রদ্ধায় জাতি স্মরণ করছে বায়ান্নর বীর ভাষাশহীদদের। একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরপর শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের স্পিকার, ১৪ দলের নেতা, বিরোধী দলের নেতা ও তিন বাহিনীর প্রধান। বরাবরের মতো এবারও ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সর্বস্তরের মানুষের ঢল নেমেছে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বায়ান্নর ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে রাত ১২টার আগেই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আসেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে রাত ১২টা ১ মিনিটে জাতির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদীতে প্রথমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

পরে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সভানেত্রী শেখ হাসিনা দলের নেতাদের নিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

এরপরে একে একে শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া।

এছাড়া শহীদ বেদীতে ফুল দেন ১৪ দলের নেতারা ও বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ; ঢাকার দুই সিটির পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা জানানো হয়।

তিন বাহিনীর পক্ষে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করেন সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর প্রধানরা। মাতৃভাষার জন্য আত্মদানকারীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান ঢাকায় নিযুক্ত বিদেশি কূটনীতিকরাও।

শ্রদ্ধা জানান ভাষা সৈনিক, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও সেক্টর কমান্ডাররা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান। পরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এরপর স্মৃতির মিনারে নামে সর্বস্তরের জনতার ঢল। একে একে চলে শ্রদ্ধা নিবেদন। শ্রদ্ধা জানাতে থাকে বিভিন্ন, সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here