গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়ার নায়কোচিত ক্ষিপ্রতায় সেভিয়ার মাঠ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে গোলশূন্য ‘ড্র’ করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

২০১৪ সালের পর প্রথমবার চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে খেলতে নেমেছিল ম্যানইউ। রামোন সানচেজ পিজুয়ানে প্রথম লেগের গোলশূন্য ড্র ইউনাইটেডের জন্য খারাপ ফল নয়, কারণ এর চেয়েও বাজে কিছু হতে পারতো। শেষ চার ম্যাচে দ্বিতীয়বার বেঞ্চে বসানো হয়েছিল পল পোগবাকে। ফরাসি ফরোয়ার্ড ১৭ মিনিটে চোট পাওয়া অ্যান্ডার হেরেরার বদলি নেমেছিলেন। কিন্তু ম্যানইউর আক্রমণভাগের কেউ নয়, এদিন সব আলো কেড়েছেন ডি গিয়া।

শুরুতেই ম্যানইউর স্প্যানিশ গোলরক্ষক পরীক্ষা দেন। বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া লুইস মুরিয়েলের মাটি কামড়ানো শট ডানদিকে ঝাপিয়ে পড়ে ঠেকান ডি গিয়া। কিছুক্ষণ পর হেসুস নাভাসের শট লাগে দূরের পোস্টে। এরপর নামেন পোগবা, কিন্তু ম্যাচের গতিপথ পাল্টে দিতে পারেননি।

বরং ডি গিয়ার বীরত্বে প্রথম ৪৫ মিনিটে ম্যানইউ পিছিয়ে পড়েনি। বিরতির ঠিক আগে স্প্যানিশ গোলরক্ষক তার একেবারে সামনে থেকে করা মুরিয়েলের হেড দুর্দান্তভাবে রুখে দেন। এমন পারফরম্যান্সে প্রথমার্ধের পর মাঠ ছাড়ার সময় সেভিয়ার স্ট্রাইকারের অভিনন্দন পেয়েছেন ডি গিয়া। এর কিছুক্ষণ আগে ক্লেমেন লেঙ্গলেটের হেড গোলবারের উপর দিয়ে পাঠান ম্যানইউ গোলরক্ষক।

প্রথম ৪৫ মিনিটে কেবল একবার লক্ষ্যে শট নিতে পেরেছিল ইউনাইটেড। ২৫ গজ দূর থেকে স্কট ম্যাকটোমানির শটটি লক্ষ্যভ্রষ্ট করতে খুব বেশি কষ্ট করতে হয়নি সেভিয়া গোলরক্ষক সার্জিও রিকোকে।

দ্বিতীয়ার্ধে ডি গিয়াকে খুব বেশি পরীক্ষা দিতে হয়নি। স্বাগতিকরাও বিশেষ সুবিধা করতে পারেনি। ম্যাচের শেষ পর্যন্ত ২৫টি শট মোকাবিলা করেছেন ইউনাইটেড গোলরক্ষক, যার মধ্যে গোলমুখে ছিল ৮টি। দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়ে তাই এই জয়ের সমান ড্রয়ের নায়ক কেবল ডি গিয়াই। চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে আগামী ১৩ মার্চ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে দ্বিতীয় লেগে তার সঙ্গে জ্বলে উঠতে হবে পোগবা-লুকাকুদেরও।

শেষ ষোলোর আরেক ম্যাচে শাখতার দোনেৎস্ক পিছিয়ে পড়েও ২-১ গোলে জিতেছে এএস রোমার বিপক্ষে। ৪১ মিনিটে চেঙ্গিস ওন্দারের গোলে এগিয়ে যায় ইতালিয়ানরা। দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ায় ইউক্রেনের দল। স্বাগতিকদের হয়ে ৫১ মিনিটে ফাকুন্দো ফেরেইরা সমতা ফেরান। ফ্রেডের ৭১ মিনিটের গোলে জয় নিশ্চিত করে শাখতার।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here