চাঁদে হাত বাড়ানো নিছকই একটা প্রবাদবাক্য ছিল। সে প্রবাদ ভেঙে অনেকদিন আগেই বাস্তব করে দেখিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এমনকি চাঁদে ঘরও বানানোর উদ্যোগ নিয়েছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। এবার চাঁদে বসেই ফোনে কথা বলার সুযোগও তৈরি করা হচ্ছে।

হ্যাঁ, ঠিকই দেখছেন। চাঁদে বসছে মোবাইল নেটওয়ার্ক। সবকিছু ঠিক থাকলে সম্ভবত সামনের বছরের মধ্যেই চাঁদে মোবাইল নেটওয়ার্ক বসে যাবে। উচ্চমাত্রার স্ট্রিমিংয়ের মাধ্যমে পৃথিবীতে যোগাযোগ করা যাবে। বেসরকারি চন্দ্র অভিযানের প্রজেক্টে অংশ হিসাবে এই নেটওয়ার্ক বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে রয়েছে ভোডাফোন জার্মানি, নোকিয়া ও গাড়ি তৈরির সংস্থা অডি। মঙ্গলবার এই তিন সংস্থা জানিয়েছে, নাসার প্রথম চন্দ্রাভিযানের ৫০ বছর উদযাপনে এই অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ভোডাফোন জানিয়েছে, প্রযুক্তির পার্টনার হিসেবে তারা নোকিয়াকে যুক্ত করেছে। একটি স্পেস-গ্রেড নেটওয়ার্ক তৈরি করা হবে যা খুব ছোট অথচ শক্তিশালী হবে। স্পেস এক্সের সাহায্য ২০১৯ সালে কেপ ক্যানাভেরাল থেকে স্পেস এক্স ফ্যালকন ৯ রকেটের মাধ্যমে প্রজেক্টের পথ চলা শুরু হবে বলে ভোডাফোন জানিয়েছে।

চাঁদে ৪জি নেটওয়ার্ক চাঁদে ৪জি নেটওয়ার্ক প্রথমে ভাবা হয়েছিল ৫জি নেটওয়ার্ক বসানো হবে চাঁদে। তবে পরে দেখা যায় এই নেটওয়ার্ক এখনও সেভাবে পরীক্ষিত নয়। ফলে আপাতত ৪জি নেটওয়ার্কই চলবে চাঁদে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here