দেশের তৈ‌রি পোশাক খা‌তে (২০১২-২০১৬) ৪ বছ‌রে কর্মসংস্থানের প্রবৃ‌দ্ধি কমেছে ব‌লে জা‌নি‌য়ে‌ছে বেসরকা‌রি গ‌বেষণা প্র‌তিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ (সিপিডি)।

শনিবার (৩ মার্চ) রাজধানীর একটি হোটেলে পোশাকখাতের সার্বিক পরিস্থিতি বিষয়ে সিপিডির প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে এসব তথ্য উ‌ঠে আ‌ছে। ১৯৩টি প্রতিষ্ঠানের ২ হাজার শ্রমিকদের মধ্যে জরিপ চালিয়ে এ গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সিপিডি। গ‌বেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন সিপিডির গবেষণা শাখার পরিচালক ড. গোলাম মোয়াজ্জিম।

গ‌বেষণা প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ৪ বছ‌রে পোশাকখাতে কর্মসংস্থানের প্রবৃ‌দ্ধি হয়ে‌ছে ৩ দশমিক ৩ শতাংশ।  যা

২০০৫ থেকে ২০১২ পর্যন্ত ছিল ৪ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ। সেই হি‌সাবে ৪ বছ‌রে কর্মসংস্থানের প্রবৃ‌দ্ধির হার ক‌মে‌ছে দশ‌মিক ৭১ শতাংশ। সার্বিকভাবে তৈরি পোশাকখাতে নারী শ্রমিকের সংখ্যাও ক‌মে‌ছে।’

প্র‌তি‌বেদ‌নে বলা হয়, ‘পরিবারতন্ত্রে পরিচালিত বোর্ডের হার শতকরা ৮৯ শতাংশ’। অর্থাৎ  প্র‌তিষ্ঠানগু‌লোর পরিচালনা বোর্ড অধিকাংশই একই পরিবারের সদস্য দ্বারা প‌রিচা‌লিত হয়।’

পুরুষ-নারীদের মজুরির ক্ষেত্রে গড়ে তিন শতাংশ বেতন বৈষম্য রয়েছে। এখানে পুরুষদের বেতন গড়ে সাত হাজার ২৭০ টাকা অার নারীদের সাত হাজার ৫৮ টাকা।

রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর দেশে পোশাকখাতে সামাজিকভাবে অগ্রগতি হলেও অর্থনৈতিকভাবে অগ্রগতি পিছিয়ে। নারী পুরুষের বেতন বৈষম্য কমে অাসলেও নারী কর্মসংস্থামের হার কমেছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিপিডির চেয়ারম্যান রেহমান সোবহান, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মিকাইল শিপার, বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সিপিডির রিসার্চ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, বি‌কেএমইএ  সহ-সভাপতি ফজলে শামীম, শ্র‌মিক নেতা বাবুল আক্তার, সামসুন নাহার প্রমুখ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here