ভারতীয় ক্রিকেটে চাঞ্চল্যকর মোড়৷ ভারতীয় দলের ক্রিকেটার মোহাম্মদ শামির যৌন কেচ্ছার চাঞ্চল্যকর অভিযোগ সামনে এল৷ আর সেই অভিযোগ সামনে এনেছেন স্বয়ং ভারতীয় ওই পেসারের স্ত্রী৷

মঙ্গলবার তিনি ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন৷ সেখানে ফেসবুক মেসেঞ্জারে একজন মহিলার সঙ্গে মহম্মদ সামির চ্যাটের স্ক্রিন শট দিয়েছেন৷ সঙ্গে লিখেছেন, ‘সামি’স এনজয়মেন্ট’৷

স্বাভাবিকভাবেই এই পোস্ট সামনে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সর্বত্র৷ তোলপাড় গোটা দেশের ক্রীড়ামহল৷ এর আগে স্ত্রীর ছবি পোস্ট করে একাধিকবার বিতর্কে জড়য়েছেন সামি৷ এবার তিনিই বিতর্কের কেন্দ্রে৷ মঙ্গলবার রাতে সামির স্ত্রী হাসিন জাহানের আইনজীবী জাকির হোসেন জানান, বেশ কিছুদিন ধরে এসব চলছে৷ সামির বহুগামীতা ক্রমশ বাড়ছে৷ এমনকী বাড়িতেও সামি স্ত্রীর উপর অত্যাচার চালায় বলে অভিযোগ করেছেন তিনি৷ যদিও এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত সামির কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি৷

স্বামী মোহাম্মদ শামির যে ফোন থেকে নেওয়া একগুচ্ছ গোপন বার্তা ফাঁস করেছেন তাঁর পত্নী। যেখানে দেখা যাচ্ছে, বেঙ্গেলুরু নিবাসী এক মহিলা হেয়ার স্টাইলিস্ট জানাচ্ছেন যে তিনি মহম্মদ সামির সঙ্গে দেখা করতে খুবই উদগ্রীব। জনপ্রিয় ক্রিকেট তারকাকে মেসেজ করছেন, “আই মিস ইউ”। শুধু তাই নয়, ইতিবাচক রিপ্লাইও দিচ্ছেন সামি। হোটেলের রুমে দেখা করার পরিকল্পনা করেছিলেন তাঁরা।

নিজের মোবাইল নম্বরটিও মোহাম্মদ শামির সঙ্গে শেয়ার করেছিলেন ওই হেয়ার স্টাইলিস্ট। ওই মহিলার সঙ্গী সম্পর্কে কিছুটা হলেও চিন্তিত ছিলেন বাংলার ক্রিকেটার সামি। একটি মেসেজে তিনি ওই মহিলাকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, “তুমি তাঁকে আমার বিষয়ে বলেছো?” জবাবে উত্তর আসে, “ব্যাপারটা স্বাভাবিকই আছে। আমি বলিনি যে আমরা দেখা করেছি। চিন্তার কিছু নেই।” এরপরেই ওই মহিলা আবার বলেছিলেন, “আমি ওকে বলেছি যে তুমি আমার ক্লায়েন্ট।”

তবে এই বার্তালাপ সাম্প্রতিককালের নয়। স্বামী মোহাম্মদ শামির ২০১৬ সালের ২৪ অক্টোবরের বার্তালাপ শেয়ার করেছেন তাঁর স্ত্রী। ওই দিন রাত সাড়ে আটটা নাগাদ ফেসবুক মেসেঞ্জারে হয়েছিল সেই বিতর্কিত চ্যাট।

সামির স্ত্রী-র দাবি একাধিক মহিলার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক রয়েছে জনপ্রিয় পেসারের। খেলার সূত্রে বিভিন্ন শোহরে গিয়ে সেই সকল প্রেমিকারদের সঙ্গে মিলিত হন মহম্মদ সামি। এই তালিকায় দেশের বাইরের অনেক মহিলাও রয়েছে বলে দাবি করেছেন ওই বঙ্গতনয়া।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here