স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক মৃত্যুর দিনক্ষণ বলে দিতে পারে এমন একটি কৃত্রিম বৃদ্ধিমত্তা তৈরি করেছেন। এই  কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা  শরীরের বিভিন্ন দিক পরীক্ষা করে কবে মৃত্যু হবে তা জানিয়ে দিতে পারবে বলে দাবি করছেন গবেষক দলটি।

এ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পর্কে স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটির প্রতিনিধি আনন্দ আভাটি জানান, আমরা মূলত মানুষের শরীরের রোগ ও অন্যান্য ব্যাধি পরীক্ষা করে তবেই তার মৃত্যুর দিনক্ষণ ও তারিখ নিশ্চিত করতে পারব। এতে রোগ নির্ণয় সহজ হবে এবং মৃত্যুর কারণ সহজেই নির্ধারণ করা যাবে।

তিনি আরোও জানান, এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা  রোগ প্রতিরোধ  এবং স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে  আরোও বেশি জোরালো অবদান রাখবে।

এ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মৃত্যুর যে দিনক্ষণ বলবে সেটা নাকি ৯০ ভাগ ক্ষেত্রে মিলে যাবে বলে দাবি করেণ গবেষণা দলটি। স্ট্যান্ডফোর্ড ইউনিভার্সিটির এই প্রজেক্টটি এখনও পরীক্ষামূলক অবস্থায় আছে বলেও ‍জানান দলটি।

এ বিশেষ পদ্ধতিটি খুব তাড়াতাড়ি বিশ্বের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রয়োগ  করার কথাও জানান গবেষক দলটি। এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে মানুষ সহজেই  মৃত্যুর সময় গণনা করার সুযোগ লাভ করতে পারবে।

ইউনিভার্সিটিটির দাবি, তারা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার এ মডেলটি প্রায় ৪০ হাজার মানুষের ওপর পরীক্ষা করেছে।  পরিক্ষার করার পর তাদের মৃত্যুর দিনক্ষণ জানিয়েছিল গবেষক দলটি।  পরবর্তীকালে দেখা গেছে, সেই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কথা ৯০ ভাগ ক্ষেত্রে মিলে গেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here