বর্তমান যুগ হলো স্মার্টফোনের যুগ। খুব সহজেই আমরা স্মার্টফোনের মাধ্যমে নিজেদের অনেক কাজ করে ফেলছি। কিন্তু এই স্মার্টফোনের ইতিহাস সম্পর্কে আমরা কতটা জানি?

কখনও কি ভেবে দেখেছি বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন কবে তৈরি হয়েছিল? আজ থেকে প্রায় ২৪ বছর আগে প্রথম স্মার্টফোন তৈরি হয়। যখন বিশ্বের বেশির ভাগ মানুষের কাছেই স্মার্টফোনের কোনো ধারণাই ছিল না। অ্যাপল আইফোন বাজারে আনার ১৫ বছর আগে আইবিএম এই স্মার্টফোন এনেছিল।

১৯৯৪ সালে তৈরি হয়েছিল বিশ্বের প্রথম স্মার্টফোন। মিতসুবিসি ইলেক্ট্রিক কর্প কোম্পানির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই স্মার্টফোনটি তৈরি করেছিল আইবিএম।

আইবিএম ফোনটির নাম দেয় সিমন। এই ফোনে কোনো কিপ্যাড ছিল না। এখনকার স্মার্টফোনগুলোর মতোই পুরোপুরি টাচস্ক্রিন-এর মাধ্যমে এটা ব্যবহার করতে হতো।

১৯৯৪ সালের ১৬ আগস্টে শুধুমাত্র আমেরিকাতেই এই স্মার্টফোন প্রকাশ পায়। ১৯৯৫ সালে এর উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। এই প্রায় ১ বছরের মধ্যে আইবিএম মোট ৫০ হাজার ইউনিট বিক্রি করে।

দৈর্ঘ্যে ৮ ইঞ্চি, চওড়ায় ২.৫ ইঞ্চি এবং ১.৫ ইঞ্চি পুরু ছিল ফোনটি। ওজন ৫০০ গ্রাম। যে কারণে অনেকটা ইটের মতো দেখতে লাগত স্মার্টফোনটিকে।

সিমনের মেমরি ছিল ১ মেগাবাইট। তবে এর ব্যাটারির ক্ষমতা খুবই কম ছিল। চার্জ দেওয়ার পর সর্বাধিক ১ ঘণ্টা সচল থাকত ফোনটি।

শুধু তাই নয়, বর্তমান স্মার্টফোনের অনেক ফিচার সিমনেও ছিল। ম্যাপিং, স্প্রেডশিট গেম, নোটপ্যাড, ফ্যাক্স এমনকি মেল আদান-প্রদানও করা যেত এই স্মার্টফোনে।

এছাড়াও বর্তমান স্মার্টফোনের অনেক ফিচার সিমনেও ছিল। ম্যাপিং, স্প্রেডশিট গেম, নোটপ্যাড, ফ্যাক্স এমনকি মেল আদান-প্রদানও করা যেত এই স্মার্টফোনে।

ফিচারগুলো হয়তো বর্তমান সময়ের চেয়ে সেকেলে হলেও এই স্মার্টফোনের সূচনাই আজকের উন্নতমানের স্মার্টফোন তৈরিতে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here