গুলশানের অভিজাত ইউনাইটেড হাসপাতালকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। মূলত রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষায় মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক ব্যবহারসহ কয়েকটি অপরাধে এই জরিমানা করা হয়।

বুধবার এ অভিযান চালানো হয় বলে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান।

সারওয়ার আলম জানান, দুপুর থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত ইউনাইটেড হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। এ সময় হাসপাতালটির ল্যাবরেটরিতে গিয়ে দেখা যায় অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ। সেখানে প্রচুর পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক (রি-এজেন্ট) পাওয়া যায়। সেগুলো নির্ধারিত তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা হয়নি। ফলে অনেক রাসায়নিক জমে বরফ হয়ে ছিল।

তিনি আরও জানান, এসব ব্যবহার করে রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষা করা হলে সঠিক ফল না পাবার সম্ভাবনাই বেশি। এ ছাড়া অস্ত্রোপচারে ব্যবহৃত সুতার বেশিরভাগই ছিল মেয়াদোত্তীর্ণ। এসব সুতা দিয়ে সেলাই করা হলে ক্ষতস্থানে সংক্রমণ হতে পারে। এসব অপরাধে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ইউনাইটেডের মতো বড় হাসপাতালে এমন চিত্র পাওয়া দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তারা পরে লিখিত ব্যাখ্যা দেবেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here