আজকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক তাজা খবর শেয়ার করা হয়। কিন্তু তার মধ্যেই কিছু অসৎ ব্যক্তি নিজস্ব বা গোষ্ঠী স্বার্থ সিদ্ধির জন্য ভুয়া খবর ছড়িয়ে দেন। যাতে অনেকে যেমন বিভ্রান্ত হন তেমনি ছড়িয়ে পড়তে পারে মারাত্মক সামাজিক অস্থিরতা। দেখা গেছে অনেক জায়গাতেই জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটারে ভুয়া খবর ছড়িয়ে দিয়ে যুদ্ধ-বিগ্রহ আবার কখনো দাঙ্গা পরিস্থিতিও তৈরি করা হয়েছে।কখনো বা ভুয়া খবর ছড়ানো হয় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতেও।আবার কখনো স্রেফ মজার জন্যই ভুয়া খবর ছড়ানো হলেও তার কিছু কিছুর পরিণতি মজা থাকে না।ফলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই রমরমা যুগে আমাদের অবশ্যই বোঝা প্রয়োজন-কোনটি ভুয়া খবর, কোনটি না।

কিভাবে শনাক্ত করা যাবে কোনটি ভুয়া খবর?

এক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রত্যেকটি ভুয়া খবরের শিরোনাম করা হয় অত্যন্ত কৌশলের সঙ্গে। সুতরাং কী দেখছেন আর কী পড়ছেন তার প্রতি মনোযোগী না হলে ভুয়া খবর ধরা খুব কঠিন। ভুয়া খবরের একটি স্বাভাবিক প্রবণতা হলো, উত্তেজনাপূর্ণ শিরোনাম। অনেক সময় এসব খবরের শিরোনামে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নিয়ে অশ্লীল, ইঙ্গিতপূর্ণ বা সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেওয়া হয়। সুতরাং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোনও খবর দেখলে তার শিরোনাম ভালো করে খেয়াল করুন। খবর পড়ার সময় অবশ্যই খেয়াল করুণ শিরোনামের সঙ্গে ভেতরের লেখার বিষয়বস্তু মিলছে কি না।

এরপরই খবরটির লিংকে ঢোকার আগে অবশ্যই দেখতে হবে কোন সাইট থেকে তা শেয়ার করা হয়েছে। দুর্বৃত্তরা অনেক সময় জনপ্রিয় গণমাধ্যমগুলোর নাম বা নামের কোনও অক্ষর সামাণ্য হেরফের করে ভুয়া আইডি থেকে মিথ্যা খবর শেয়ার দেয়। যদি লিংকটিতে ঢুকেও পড়েন তাহলে খেয়াল করুন ওই সাইটটিতে আর কী কী এবং কোন ধরণের খবর আছে।পরিবেশিত খবরগুলো নিয়ে মনে কোনও প্রশ্নের উদ্রেগ হয় কি না।

খেয়াল করুন যে খবরটি আপনাকে আকৃষ্ট করেছে তা অন্য কোনও সাইটে আছে কি না।যদি না থাকে তবে তার আসল উৎস বের করার চেষ্টা করুন।
পড়া খবরটি বিশ্বাস করবার আগে ভালো করে দেখুন এতে দায়িত্বশীল কারো বক্তব্য বা তথ্য সূত্র আছে কি না।

খেয়াল রাখবেন ভুয়া খবর সাধারণত ছড়ানো হয় বিশেষ কিছু উদ্দেশ্যে। সাধারণত চলচ্চিত্র বা টিভি তারকা, জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, ধর্মগুরুসহ নিজ নিজ ক্ষেত্রে সফলদের নিয়ে ভুয়া খবর ছড়ানো হয়। কখনো কখনো সাম্প্রদায়িকতা ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যে নির্দিষ্ট কোনও ধর্ম সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ শিরোনাম দিয়েও ভুয়া খবর ছড়ানো হয়।

ভুয়া ছবি চিনবেন কিভাবে?

ভুয়া খবরের পাশাপাশি ভুয়া ছবিও অনেক সময় ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়।উত্তেজক কোনও ছবি দেকলেই তার বিষয়বস্তু বিশ্বাস করে ফেলবেন না। ভালো মতো লক্ষ্য করুন ছবিটির মাধ্যমে কোন বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে এবং এটি স্পস্ট কি না।
ছবির দিকে মনোযোগ দিয়ে তাকাতে হবে। দেখুন ছবির কোনো কিছু আপনার কাছে অসামঞ্জস্য মনে হচ্ছে কি না। সবশেষ মুহূর্তে ভাইরাল হওয়া কোনো ছবি নিয়ে সন্দেহ হলে সঙ্গে সঙ্গে গুগল ইমেজে সার্চ দিয়ে ছবিটির আসল উৎস দেখে নিন।
তারপরও মনের অজান্তেই অনেকে ভুয়া খবর বা ছবির শিকার হয়ে যেতে পারেন। তাই ফেসবুক বা টুইটারে কোনো খবর শেয়ার দেওয়ার আগে ভালো মতো চিন্তা-ভাবনা করুন। সর্বোপরি ফেসবুক বা টুইটারের উপর নির্ভরশীল না হয়ে প্রকৃত খবরের জন্য পত্রিকা, পরিচ্ছন্ন অনলাইন সংবাদমাধ্যম, রেডিও, টিভির ওপর ভরসা করুন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here