যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিয়োগ দেওয়া প্রধান আইনজীবী জন ডাউড পদত্যাগ করেছেন। ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তপে নিয়ে চলমান তদন্তে ট্রাম্পের প্রধান আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন তিনি। গতকাল বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নিজের দেওয়া পরামর্শ ট্রাম্প ক্রমাগত উপেক্ষা করায় ডাউড পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনকালীন সহযোগীদের সঙ্গে রাশিয়ার সম্ভাব্য যোগাযোগ নিয়ে তদন্ত করছেন রবার্ট মুলার। তার দলের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ট্রাম্প মুখোমুখি হবেন কি না তা নিয়েই আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন জন ডাউডের দল। কিন্তু নিজের আইনজীবীর ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলেছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি ভেবেছেন, রবার্ট মুলারকে সামলানো ডাউডের পক্ষে সম্ভব নয়। সে কারণেই নিজের প্রধান আইনজীবীকে উপেক্ষা করছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এদিকে সংবাদ মাধ্যমকে পাঠানো এক বিবৃতিতে ডাউড বলেছেন, ‘আমি প্রেসিডেন্টকে (ট্রাম্প) ভালোবাসি এবং তার ভালো চাই।’ ডাউডের পদত্যাগ নিয়ে প্রেসিডেন্টের কাউন্সিল জে সেকুলো বলেন, ‘জন ডাওড আমাদের বন্ধু ও আইনি দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন। আমরা প্রেসিডেন্টের হয়ে লড়াই চালিয়ে যাবো।’

এখন পর্যন্ত ট্রাম্প প্রশাসনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তার বিদায় ঘটেছে। এর মধ্যে কেউ পদত্যাগ করেছেন, কাউকে আবার ট্রাম্প নিজেই বরখাস্ত করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here