নাট্যব্যক্তিত্ব গাজী রাকায়েতের ‍বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে রাজধানীর শ্যামপুর থানায় মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে এক নারী ওই মামলাটি দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেন শ্যামপুর থানার ওসি মিজানুর রহমান।

এজাহারে ওই নারী অভিযোগ করেছেন, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাতে গাজী রাকায়েত কুটু নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে তার মেসেঞ্জারে কথা বলার সময় বিভিন্ন অশ্লীল, অনৈতিক এবং ধর্মীয় অনুভূতি পরিপন্থী বিভিন্ন ইঙ্গিতপূর্ণ প্রস্তাব দেওয়া হয়। এসব সব আলাপ বন্ধ করতে বলার পরও তিনি জঘন্য রকম যৌন উত্তেজক কথা বলে ওই নারীকে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা করেন।

ওই নারী উল্লেখ করেন, ‘গাজী রাকায়েত একজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। তার আইডি থেকে এ ধরনের বক্তব্য আসায় আমি খুবই মর্মাহত। মেসেঞ্জারের স্ক্রিনশট আমি একটি ক্লোজ গ্রুপে পোস্ট দেই। এরপর ৬ মার্চ গাজী রাকায়েত তার ফেসবুক পোস্টে নিজের দুটি ফেসবুক আইডি থাকার কথা স্বীকার করেন, যা হ্যাক হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। তার ওই পোস্টের নিচে হ্যাক হওয়ার তারিখ জানতে চাইলেও তিনি কিছুই জানাননি। ৯ মার্চ আমার এক বন্ধু মেসেঞ্জারের ওই স্ক্রিনশট দিয়ে তার ফেসবুক আইডিতে পোস্ট দেন। তখন গাজী রাকায়েত আবারও বিষয়টি তার ছাত্রদের ওপরে চাপিয়ে দেন।

এর আগে এই ঘটনায় শ্যামপুর থানায় ওই নারী একটি জিডি করেছিলেন। এছাড়া তিনি ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনেও তিনি অভিযোগ করেন। তবে তিনি সেসব জায়গা থেকে কোনও ফলাফল পাননি বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here