বিয়ের সব কিছুই ঠিক, পাত্র আসার অপেক্ষা। কিন্তু হঠাৎ রেগে গিয়ে মেয়েকে ছুরির আঘাতে খুন করেন বাবা। বৃহস্পতিবার ভারতের কেরালায় এ ঘটনা ঘটে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, শুক্রবার ওই তরুণীর সঙ্গে তার প্রেমিকের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। প্রেমিক ছিলেন ভিন্ন গোত্রের এবং দলিত সম্প্রদায়ের। তিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন সদস্য। এ বিয়েতে প্রথমে রাজি ছিলেন না কনের বাবা। পরে মত দিলেও বিয়ের দিন ফের বেঁকে বসেন তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার এ নিয়ে মেয়ের সঙ্গে বাবার বেশ ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে বাবা ছুরি নিয়ে মেয়ের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং ক্রমাগত ছুরিকাঘাত করতে থাকেন। আহত অবস্থায় ওই মেয়েকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কেরালার মালাপ্পুরাম জেলার পুলিশপ্রধান দেবেশ কুমার বেহেরা বলেন, ওই মেয়ের বাবাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আটকের সময় তিনি মাতাল ছিলেন। এটি অনার কিলিং কি না, তা যাচাই করে দেখা হচ্ছে।

স্থানীয় পুলিশ আরও জানিয়েছে, মেয়ের বাবা রাজি হওয়ার পরই বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। পরে হত্যার ঘটনা ঘটে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here