তারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস গোপনে বিয়ে করেছিলেন। ৯ বছরের সংসার সম্পর্কে চিত্রজগতের কেউই অবগত ছিলেন না। অন্যদিকে ছেলে আব্রাম খান জয়কে নিয়ে একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে আসার পর থেকেই এই তারকা দম্পতির মধ্যে দ্বন্দ্বের সূচনা হয়।

অবশেষে গত ১২ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে বিচ্ছেদ হয় এ তারকা দম্পতির। তার এক সপ্তাহ পর ১৮ মার্চ সন্তানসহ কলকাতায় যান অপু বিশ্বাস। সেখানে আবার ‘ভাইজান এলো রে’ ছবির শুটিং করছিলেন শাকিব খান। তাই শুটিং সেটেই তাদের দেখা। আব্রাম খান জয়কে কাছে পেয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত হন বাবা শাকিব।

এ ব্যাপারে অপু বিশ্বাস বলেন, ‘ছেলের একটা মানত ছিল, সে কারণেই ভারতে গিয়েছিলাম। সেখানে আমার পরিবারের লোকজন বেশি থাকে। আমরা সবাই একসঙ্গে ঘোরাঘুরি করেছি। বলতে পারেন আমাদের গেট টুগেদার।’

শাকিব প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাবুর (জয়) বাবা সেখানে বাবুকে নিয়ে যেতে আমাকে ডেকেছেন। নিজ দায়িত্বেই গাড়ি, হোটেল রুম ঠিক করা, শপিং করানোসহ সব কিছু করেছেন। আমরা দ্য পার্ক হোটেলে (কলকাতা) পাশাপাশি রুমে এক রাত ছিলাম। বাবুর বাবা বলেছিলেন, আরো একদিন থাকতে। কিন্তু মানতের কারণে থাকতে পারিনি।’

এদিকে শাকিব-অপুর সাক্ষাৎ নিয়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন এক গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। আর সেই গুঞ্জন হলো শাকিব -অপুর নাকি বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও একে অন্যকে ভীষণ মিস করেন তারা। বিশেষ করে ছেলে জয়ের কারণে অপুর প্রতি এক ধরনের দুর্বলতা আছে শাকিবের। এছাড়াও তাদের মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। অপু নাকি এখনও শাকিবকে স্বামী হিসেবে চান। এখন শুধু শাকিবের হ্যাঁ বলার অপেক্ষায় আছেন তিনি। একবার শাকিবের মনের পরিবর্তন হলেই আবারও একই ছাদের তলায় বসবাস করবেন তারা। এখন দেখার বিষয় শাকিব-অপু সব অভিমান ভুলে এক হন কিনা?

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here