১৮ বছর আগে পাওয়া শাস্তির কলঙ্ক মাথায় নিয়েই মারা গিয়েছিলেন ভারতের মহারাষ্ট্রের বালাসাহেব জগতপ। তবে মৃত বাবার ওপর শাস্তির এই অপবাদ মেনে নিতে পারেননি ছেলে গণেশ জগতপ। তাই ওই শাস্তির বিরুদ্ধে লড়ে বাবাকে ন্যায়বিচার এনে দিয়ে নিজের কর্তব্য পালন করেছেন তিনি। অবশেষে মৃত্যুর ১৮ বছর পর মুম্বাই আদালত বালাসাহেবকে মরনোত্তর বেকসুর খালাস দিয়েছে।

জানা গেছে, ১৯৯৮ সালে এক পরিবহন কন্ডাক্টরকে হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে বালাসাহেবের বিরুদ্ধে। ২০০০ সালে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে তিন মাসের হাজতবাসের রায় শোনায় আদালত। সেই রায়ে স্থগিতাদেশ দিয়েছিল ট্রায়াল কোর্ট।

মামলা বকেয়া থাকাকালীনও ২০০৪ সালে মহারাষ্ট্র ইলেকট্রিসিটি বোর্ডের এই কর্মীর মৃত্যু হয়। তবে বাবার মৃত্যু হলেও মামলা চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেন তার ছেলে গণেশ।

সেই মামলাতেই বালাসাহেবকে মরণোত্তর বেকসুর খালাস করে মুম্বাই হাইকোর্ট । বিচারপতি প্রকাশ নায়েক জানিয়েছেন, এই ঘটনার কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মেডিকেল রিপোর্ট বলছে, অভিযোগকারীর শরীরে যে ক্ষত ছিল তা বাস থেকে পড়ে গিয়েও হতে পারে। বালাসাহেবের মারধরেই তিনি আহত হয়েছিলেন এ কথার প্রমাণ নেই।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here