রাশিয়ার সাইবেরীয় শহর কেমেরোভোয় একটি শপিং মলে অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৫৬ জন মারা গেছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছে ১৬ জন। ধারণা করা হচ্ছে, হতাহত ও নিখোঁজদের মধ্যে ৪১ জন শিশুও রয়েছে। এ পর্যন্ত ৯টি শিশুর লাশ উদ্ধার হয়েছে।

বিবিসি জানায়, আগুনের শিকার ভবনটির কিছু অংশ ধসে পড়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। নিখোঁজদের খোঁজে ভবনটিতে অভিযান চালাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা।

মস্কো থেকে প্রায় ৩৬০০ কিলোমিটার পূর্বে কয়লা উৎপাদনকারী এলাকা কেমেরোভোতে এই মলটি অবস্থিত। স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যার দিকে ওই এলাকার উইন্টার চেরি কমপ্লেক্স নামের শপিং সেন্টারটিতে আগুন লাগে। ধারণা করা হচ্ছে, একেবারে উপরের তলায় আগুনের সূত্রপাত। ওই শপিং সেন্টারের উপরের তলায় মূলত সিনেমা হলসহ বিনোদন কেন্দ্র রয়েছে। পরে ৫ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয় দমকল বাহিনী। এখন সেখানে উদ্ধার অভিযান চলছে। জরুরি সেবা বিভাগের ৬৬০ জন সদস্যকে উদ্ধার তৎপরতায় নিযুক্ত করা হয়েছে। আগুন নেভানোর পরও ভবন উত্তপ্ত থাকায় সবগুলো তলায় যেতে বেগ পেতে হয় উদ্ধারকারীদের। শেষ পর্যন্ত সিনেমা হলটিতে পৌঁছাতে সক্ষম হন তারা। অসমর্থিত সূত্রকে উদ্ধৃত করে রুশ বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স জানায়, সেখান থেকে নতুন করে কাউকে উদ্ধার করা যায়নি। ধ্বংসস্তুপের নিচে নিখোঁজরা চাপা পড়ে থাকতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

প্রাথমিকভাবে ৩৭ জন নিহত এবং ৬৪ জন নিখোঁজ থাকার কথা জানিয়েছিল রুশ কর্তৃপক্ষ। পরে তা সংশোধন করে জানানো হয়, যেসব মৃতদেহ শনাক্ত করা যায়নি তাদেরকেও নিখোঁজ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here