আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে বড় হারের লজ্জায় পর্তুগাল। রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে না পারা নেদারল্যান্ডসের কাছে হেরেছে ৩-০ গোলে।

গত ম্যাচে মিশরের বিপক্ষে নাটকীয় জয় এনে দেয়া ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এদিন পুরোপুরি ব্যর্থ। গোল মুখে একটি শটও নিতে পারেননি এই মাদ্রিদ তারকা।

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচের শুরুতেই গোল খেয়ে বসে মিশরের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তে জয় পাওয়া পর্তুগাল। খেলা শুরু হওয়ার ১১ মিনিটের মাথাতেই গোল করে পর্তুগালকে অবাক করে দেন মার্শেইতে খেলা মেম্ফিস ডেফায়। ভ্যান দে বিকের ক্রসে ডি বক্সের ভেতর অসাধারণ এক গোল করেন এই ডাচ ফুটবলার। ম্যাচের ৩২তম মিনিটে হেডে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন বেসিকতাসের ফরোয়ার্ড রায়ান বাবেল।

আর প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে লিভারপুল ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডিক হাফভলিতে ব্যবধান আরও বাড়ালে ম্যাচ থেকে একরকম ছিটকে পড়ে ইউরোপ চ্যাম্পিয়নরা। ৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় পর্তুগাল।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়ায় ইউরো চ্যাম্পিয়নরা। বদলি হিসেবে রিকার্ডো কোয়ারেজমাকে মাঠে নামান কোচ সান্তোস। কিন্তু রোনাল্ড কোয়েম্যানের কাছে তার সকল প্রচেষ্টাই ব্যর্থ হয়ে যায়। মরার ওপর খারার ঘা হিসেবে জোটে ম্যাচের ৬১তম মিনিটে জাও ক্যান্সেলিনোর লাল কার্ড। ফলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় পর্তুগাল। খেলার ৬৮তম মিনিটে রোনালদোকে তুলে প্লেমেকার জোয়াও মৌতিনিয়োকে নামান কোচ সান্তোস। বাকি সময়ে ভালো দুটি সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি ফের্নান্দো সান্তোসের দল। ফলে ০-৩ গোলের লজ্জার হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় পর্তুগালকে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here