আর্জেন্টিনার পরবর্তি প্রজন্মের মেসি বলা হয় থাকে দিবালাকে। পাঁচ বারের ব্যালেন ডি‘অর জয়ী মেসি নিজেই বলেছিলেন দিবালার মাঝে নিজের ছায়া দেখতে পান। যদিও জুভেন্টাস তারকাকে বিশ্বকাপের পূর্বে দুই আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচের জন্য আর্জেন্টিনা দলে রাখেননি কোচ সাম্পাওলি। সাম্পাওলি অবশ্য বলে দিয়েছেন এটা বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল নয়। দলে পরিবর্তন আসতে পারে।

সম্প্রতি ফক্স স্পোর্টসেকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেন,‘ জুভেন্টাস তারকা দিবালাকে আমার পাশে দারুণ মানাবে।সাম্প্রতি ঘোষিত আর্জেন্টিনা দলে সে নেই। বিশ্বকাপে তাকে অনেক মিস করবো।’

মেসি আরও বলেন,‘ জুভেন্টাসে সে আমার মতো একই জায়গায় খেলে। কিন্তু জাতীয় দলে তাকে বাম সাইডে খেলতে হয়। হয়তো সে এটাতে অভ্যস্ত নয়।’

সত্যি বলেতে কি এটা আমার জন্য খুব কঠিন যে সেখানে খেলতে হবে, আমি খুব কমই বাম দিকে খেলি। ডানদিকটা আমার শক্তির জায়গা।

তবুও মেসি মনে করেনে দিবালা তার পরবর্তি প্রজন্মের সেরা প্লেয়ার। উত্তরসূরী দ্রুতই জাতীয় দলে ফিরুক এমন প্রত্যাশা মেসির। তিনি আশা করনে দিবালা দলে ফিরবে এবং বিশ্বকাপে তাদের জুটি ভালো জমবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here