২০১৪ বিশ্বকাপে ঘরের মাঠে সেমিতে ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর আবারও জার্মানির মুখোমুখি হচ্ছে ব্রাজিল। এর আগে সেলেসাও কোচ তিতে জানিয়েছেন, বেলো হরিজন্তের সেই ম্যাচের কষ্ট আজও ভূত হয়ে চড়ে আছে তার শিষ্যদের কাঁধে।

গত বিশ্বকাপে সেমি-ফাইনালের মত ম্যাচে খেলতে নেমে প্রথমার্ধেই ৬ গোল খেয়েছিল নেইমারবিহীন ব্রাজিল। টনি ক্রুজ ও আন্দ্রে শুরলের জোড়া গোলে ৭-১ গোলে উড়ে যায় পাঁচবারের বিশ্বসেরা দল।

বার্লিন অলিম্পিক স্টেডিয়ামে আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২.৪৫ মিনিটে জার্মানদের মুখোমুখি হবে তিতের শিষ্যরা। সেই ম্যাচের আগে জার্মান ম্যাগাজিন কিকারের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে চার বছর আগের ম্যাচের স্মৃতিই উঠে আসল ব্রাজিল কোচের কণ্ঠে।

‘বিশ্বকাপে ৭-১ গোল হজম করা অনেকটা ভূতের মত। যেন এটার অস্তিত্ব আছে। জনগণ এটা নিয়ে যত কথা বলবে ততই এর অস্তিত্ব বাড়তে থাকবে। যদি আপনি এ নিয়ে কথা বলা ছেড়ে দেন তাহলে ভূতটাও কিন্তু একসময় আর থাকবে না।’

বেলো হরিজন্তে ম্যাচের মত মঙ্গলবারের ম্যাচেও থাকছেন না নেইমার। তাকে ছাড়াই জার্মানদের বিপক্ষে নামার আগে চাপে থাকার স্বীকার করেছেন তিতে।

‘ম্যাচটা এখন শুধু খেলার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। এটা এখন মানসিকচাপও।’

তবে তিতে চাপের কথা বললেও এই ম্যাচে গত বিশ্বকাপের মত কিছু ঘটবে না। অন্তত এমনটাই মনে করেন জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুজ। তখনকার ব্রাজিলের এখনকার দল দুই গ্রেড এগিয়ে বলেও মন্তব্য রিয়াল মাদ্রিদ তারকার।

‘২০১৪ তুলনায় বর্তমান দলের দিকে তাকালে আমার মনে হয় এই দলটি দুই গ্রেড এগিয়ে। তাদের দারুণ সব খেলোয়াড় রয়েছে। আমার রিয়াল সতীর্থ কাসেমিরোতে খুবই ভাল করছে। পুরো দল নিয়ে ভাল করবে। ব্রাজিল বিশ্বকাপের স্পষ্টতই ফেবারিট দল।’

এর আগে গত শুক্রবার এবারের বিশ্বকাপের স্বাগতিক দল রাশিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ব্রাজিল। দারুণ খেলে দলটিকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল সেলেকাওরা। আর শনিবার স্পেনের বিপক্ষে রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে জার্মানি। এই নিয়ে টানা ২২ ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে দলটি।

ছোটখাট চোটের কারণে এই ম্যাচ থেকে নাম সরিয়ে নিয়েছেন জার্মানির এমরে চান, টমাস মুলার ও মেসুত ওজিল। তবে ব্রাজিল সম্ভবত রাশিয়া ম্যাচের একাদশ নিয়েই নামবে। একটি পরিবর্তন আসতে পারে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here