যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রভাবশালী সাময়িকী ফোর্বস এশিয়ার সেরা ৩০ উদ্যোক্তার তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে বাংলাদেশের দুই তরুণের নাম উঠে এসেছে। তারা হলেন- অনলাইন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান টেন মিনিটস স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিক (২৬) ও পরিবেশ রক্ষায় নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘চেঞ্জ’-এর প্রধান সাজিদ ইকবাল (২৭)।

‘৩০ আন্ডার ৩০ এশিয়া ২০১৮ : দ্য সোস্যাল এনট্রপ্রেনারস ব্রিঙ্গিং পজিটিভ চেইঞ্জ টু এশিয়া’ শিরোনামে তালিকাটি গত সোমবার প্রকাশ করে ফোর্বস। গেল বছরও এ তালিকায় স্থান করে নেন বাংলাদেশি তরুণ মো. মিজানুর রহমান কিরণ ও তরুণী সওগাত নাজবিন খান।

শিক্ষামূলক সংগঠন হিসেবে ২০১৫ সালে মোবাইল অপারেটর রবির সহায়তায় ‘টেন মিনিট স্কুল’ প্রতিষ্ঠা করেন শিক্ষা উদ্যোক্তা আয়মান সাদিক। শুরু থেকে স্কুলের লক্ষ্য ছিল এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি, যেখান থেকে মানুষ শিক্ষা অর্জন করতে পারবে। তাই স্কুলটি ইউটিউব এবং ফেসবুকে সংক্ষিপ্ত লেকচারসমৃদ্ধ ভিডিও প্রকাশ করে। বাংলায় ভিডিওচিত্র নির্মাণের পাশাপাশি অনলাইনে লাইভ ক্লাসও নেয় সাদিকের এই অনলাইন স্কুল।

ফোর্বস বলছে, আয়মান সাদিকের অনলাইন স্কুলটি শিক্ষার্থীদের দতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে শত শত লাইভ কাস, স্মার্ট বই, হাজার হাজার ভিডিও টিউটরিয়াল তৈরি করে। বর্তমানে দেড় লাখের বেশি শিক্ষার্থীর কাছে পৌঁছে গেছে তার এই স্কুল। সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকারও এর সহায়তায় এগিয়ে এসেছে।

ব্রিটিশ রানির কুইন্স ইয়াং লিডারস অ্যাওয়ার্ডস-২০১৮ লাভ করেছেন আয়মান সাদিক। এ ছাড়া স্কুল প্রতিষ্ঠা করে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় আইসিটি জোটের বেস্ট ই-লার্নিং অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন তিনি।

এদিকে পরিবেশ রক্ষায় নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারের লক্ষ্যে সাজিদ ইকবাল ২০১২ সালে প্রতিষ্ঠা করেন ‘চেঞ্জ’। প্ল্যাস্টিকের বোতল ব্যবহার করে পরিবেশসম্মত বিকল্প জ্বালানির ব্যবস্থা করতে ওই সময় একটি প্রকল্প চালু করেন তিনি। ‘বোতলবাতি’ নামে তার এই প্রকল্প দ্রুত ব্যাপক সাড়া পায়। দিনের বেলায় বস্তির অন্ধকার ঘরে সূর্যের আলো ব্যবহার করে তৈরি হয় এই বোতলবাতি। শুধু ঘরেই নয়, বড় বড় শিল্পপ্রতিষ্ঠানে পরিবেশসাশ্রয়ী বাতি পৌঁছে দিতে সোলার পাইপ লাইট নামের একটি প্রকল্প নিয়েও কাজ করে তার প্রতিষ্ঠান।

তার বর্ণনা দিতে গিয়ে ফোর্বস বলছে, জার্মানির একটি সংস্থার সহায়তায় বাংলাদেশের পিছিয়ে পড়া অন্তত ৪ হাজার মানুষের ঘরে বোতলবাতির আলো পৌঁছে দিয়েছেন সাজিদ। তার এই প্রতিষ্ঠান সৌর লণ্ঠন, সড়ক বাতি, ক্ষুদে সেচ পাম্প প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করছে।

তরুণ উদ্যোক্তা সাজিদ এর আগে প্রফেসর মোহাম্মদ ইউনূস পদক, মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর, ব্রিটিশ রানির কাছ থেকে কুইন্স ইয়াং লিডারস অ্যাওয়ার্ডস-২০১৭ লাভ করেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here