বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সে কারণেই তার সঙ্গে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাক্ষাৎ স্থগিত হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিএনপি। তবে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে কারা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী গণমাধ্যমকে জানান, চেয়ারপারসনের সঙ্গে দেখা করার জন্য মির্জা ফখরুলকে বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় সময় দেওয়া হয়েছিল। সে অনুযায়ী ফখরুল নয়া পল্টনে দলের কার্যালয় থেকে রওনাও হয়েছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে পড়ায় সাক্ষাৎ স্থগিত হয়েছে। রিজভী বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি, সিভিল সার্জনসহ একটি চিকিৎসক দল ম্যাডামকে দেখতে কারাগারে যাবে।’

বিএনপি নেতারা অবশ্য বলছেন, কারাগারের জেলার নিজেই খালেদা জিয়ার একান্ত সচিবকে ফোন করে তার অসুস্থতার কথা জানিয়ে সাক্ষাৎ স্থগিতের কথা জানান। তবে কারা কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

এদিকে মির্জা ফখরুল কারাগারে যাচ্ছেন খবর পেয়ে দুপুর থেকেই নাজিমউদ্দিন রোডে জড়ো হন সংবাদকর্মীরা। কিন্তু তারাও কারা কর্তৃপক্ষের আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য জানতে পারেননি। জানা যায়নি খালেদা জিয়ার কী ধরনের শারীরিক সমস্যা হয়েছে।

সরকারি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি ৫ বছরে সাজায় হয় খালেদা জিয়ার। এরপর থেকেই বিএনপি প্রধান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের অস্থায়ী বাসিন্দা।

এর আগে গত ৭ মার্চ মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির স্থায়ী কমিটির সাত নেতা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পেয়েছিলেন। বাকিরা হলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এমবিএম আবদুস সাত্তার। খালেদা জিয়ার বোন সেলিনা ইসলাম, ছোট ভাই শামীম এস্কান্দর, স্ত্রী কানিজ ফাতিমাসহ পরিবারের সদস্যরাও একাধিকবার কারাগারে গিয়ে দেখা করে এসেছেন।

এর বাইরে আইনজীবী হিসেবে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রেজাক খান ও এজে মোহাম্মদ আলী কারাগারে খালেদার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পেয়েছেন। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিজয়ী সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, সম্পাদক মাহবুবউদ্দিন খোকনসহ খালেদা জিয়ার ছয় আইনজীবী সর্বশেষ গত ২৭ মার্চ কারাগারে গিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। আর এই সাক্ষাৎকে ঘিরেই রাজনীতির অঙ্গনে ঘুরছে একটি কথা। জানা যায়, খালেদা জিয়া তার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে সব মামলা থেকে সরে দাঁড়াতে নির্দেশ দিয়েছেন। যদিও বিষয়টি বিএনপি অস্বীকার করছে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here