সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সৌদি আরব, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়া সফর নিয়ে আজ বুধবার গণভবনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে একে একে সব সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তর দেন প্রধানমন্ত্রী। কখনো জবাব দিতে গিয়ে মজা করেন। এসব উপস্থিত অনেকেই হেসে ওঠেন।

সাংবাদিক শাবান মাহমুদের এক প্রশ্নের উত্তর শুরুর প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘শোনেন, একটা কথা আছে না! ঘি সব সময় খাঁটি হয়, জনসভা সব সময় বড় হয়। রাজনৈতিক দল সব সময় অবশ্যই সব থেকে বৃহৎ দল। নির্বাচন হলেই আমরা জয়ী হবো, নিশ্চয়ই সব সময় আমরা এটা বলব।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কারাবন্দী জীবন সম্পর্কে বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি একটা অন্যায় কাজ করেছি, বলেন তো অন্যায়টা কী? একজন নিরাপরাধ মানুষ, ফাতেমা বেগম। উনার (খালেদা জিয়া) এখন সাথে মেড সারভেন্ট (পরিচারিকা) লাগবে। আপনি বলেন যে, সাজাপ্রাপ্ত কোন আসামিকে কবে কে কোন দেশে, মেড সারভেন্ট সাপ্লাই দিছে। তাদের সে দাবিও আমরা মেনে নিয়ে আমাদের হোম মিনিস্টার দয়াপরবশ হয়ে তাকে তার মেড সারভেন্ট পর্যন্ত সাথে দিয়ে দিছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মানবাধিকার সংস্থাও তো এত সোচ্চার, তারা কেউ কিন্তু সোচ্চার হয় নাই। একজন নিরাপরাধ মানুষ কেন খামাখা জেল খাটবে? তার পরও যদি একটা ভালো বেতন-টেতন দিত, তাও না। কত বেতন দেয় সেটা জিজ্ঞেস করে নেন। আমি আর বলতে চাই না।’

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যার একখান গাড়ি চলত না, সেই পরিবার এখন তিনখান গাড়ি চালায়। অর্থনীতির এটাও একটা ইনডেকেটর।’

আরেক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে রাজধানীর যানজট প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই ট্রাফিক জ্যাম তো পৃথিবীর সব দেশে আছে। লন্ডনে কী অবস্থা? কয় ঘণ্টা আগে বের হতে হয়? একটা প্রোগ্রাম ধরতে গেলে তিন ঘণ্টা আগে বের হতে হয়। আমাদের এখানে তো তাও চলে, ওখানে চলেও না। একটার সাথে একটা লেগেই থাকে। ঠিক একই অবস্থা ইটালিতে, যেখানে যাচ্ছি, সবখানেই একই অবস্থা।’

মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের সাংবাদিক রেজওয়ানের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে প্রধানমন্ত্রী তার সংবাদ সম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন। শেষে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আর আছে কিছু, নাই? পেট ভরছে? মন ভরছে?’

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here