কোনও প্রাণীই মল-মূত্র ত্যাগ না করে বেঁচে থাকতে পারে না। কিন্তু আলাস্কার এই উড ফ্রগ টানা ৮ মাস রেচন ক্রিয়া বন্ধ রেখে বাঁচতে পারে। কীভাবে তারা এই কাজ করতে পারে, সেই নিয়ে গবেষণাও চালিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

রয়্যাল সোশ্যাইটির একটি জার্নালে বলা হয়েছে, তীব্র ঠান্ডায় নিজের ইউরিনকেই কাজে লাগায় উড ফ্রগ। উপকারী নাইট্রোজেনের সাহায্যে তারা শীতকালে শরীরকে আরও ঠান্ডা করে রাখে। শরীরের টিস্যু ও কোষগুলিকে রক্ষা করতেও বের না হওয়া ইউরিন অত্যন্ত কাজে লাগে। এছাড়া হৃদযন্ত্র, মস্তিষ্ক ও রক্ত সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে এই ইউরিন কাজে লাগাই ক্ষুদ্র জীবটি। আর এটি করতে সক্ষম হয় এই প্রজাতির ব্যাঙ-ই। কারণ তাদের শরীরের ভিতর স্পেশাল মাইক্রোবস রয়েছে, যার ফলে তারা ইউরিনকে রিসাইকেল পদ্ধতিতে চালনা করতে পারে।

ওহিয়োর মিয়ামি ইউনিভার্সিটির জুয়োলজিস্ট জন কোস্টানজো যেমন বলেছেন, এই প্রজাতির ব্যাঙের চোখ সাদা ধবধবে। ত্বক অত্যন্ত ঠান্ডা হয়। দূর থেকে দেখতে অনেকটা একখণ্ড পাথরের মতো দেখতে লাগে। দেখলে মনে হবে তারা একটি বরফ জমা একখণ্ড পাথর।

আমেরিকা ও আর্কেটিক জোনের মধ্যে এই উড ফ্রগের দেখা মেলে। কিছু আলাস্কান উড ফ্রগ শূন্য বা মাইনাস ১৮ ডিগ্রিতেও বেঁচে থাকতে পারে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here