রাঙামাটির নানিয়ারচরে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমার শেষকৃত্যে যাওয়ার পথে তার সমর্থকদের ওপর গুলি চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও সাতজন।

নিহতরা হলেন ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) প্রধান তপনজ্যোতি চাকমা, মহালছড়ির সেতু লাল চাকমা (৪০), কনক চাকমা (৩৮) ও সুজন চাকমা (৩০) এবং খাগড়াছড়ির পানছড়ি এলাকার মাইক্রোবাসচালক বাঙালি সজীব (৩৪)।

শুক্রবার (৪ মে) দুপুর ১টার দিকে নানিয়ারচরের বেতছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটি জেলার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ওই ব্যক্তিরা খাগড়াছড়ি থেকে রাঙামাটির নানিয়ারচর আসছিলেন। শেষকৃত্য স্থলে আসার পথে খালিয়াজুড়ি নামক স্থানে এই হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে তিনজন আর হাসপাতালে নেওয়ার পর দুজন মারা যান। আহত লোকজনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩ মে) নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন-লারমা) সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**