ঘুষ নিলেও যেমন বিপদ, আবার না নিলেও যে কখনো কখনো আরো বিপদ হতে পারে তার উদাহরণ দেখা গেল ভারতের হিমাচল প্রদেশে। সেখানে এক সরকারি কর্মকর্তা ঘুষ নিতে অস্বীকার করায় তাকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট, হিমাচল প্রদেশে বেআইনি হোটেলগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু সেই কাজ করতে গিয়েই হোটেল মালিকের রোষের শিকার হয়েছে সাহিল বালা শর্মা নামে ওই সরকারি কর্মকর্তাকে।

হিমাচল প্রদেশের কাসাউলিতে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ পেয়ে বেআইনি হোটেলগুলি ভাঙতে যান সাহিল। তদন্তকারী কমিটির মধ্যে তিনিই ছিলেন প্রধান। এ সময় স্থানীয় এক হোটেল মালিক বিজয় সিং তাকে বড় অঙ্কের ঘুষের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু সেই দাবি নাকচ করে দেন সাহিল। এর পরেই এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় দু’জনের। তখনই সাহিলের মাথায় গুলি চালায় বিজয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় সাহিলের। পাশাপাশি আরও এক অফিসারকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় অভিযুক্ত বিজয় সিং।

স্থানীয় সূত্রে খবর, ঘটনার পরই পাশের জঙ্গলে গা ঢাকা দেয় বিজয়। তবে রাতের মধ্যে ফের নিজের বাড়িতে ফিরে আসে সে। কিন্তু এটিএম কার্ড নিয়ে ফের চম্পট দেয়।

ঘটনার দু’দিনের মধ্যে বিজয়কে গ্রেফতার করে পুলিশ। উত্তরপ্রদেশের মথুরায় একটি মন্দির থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে। পুলিশ সূত্রে খবর, ওই মন্দিরে চুল-দাঁড়ি কেটে অন্যরূপে ছিল বিজয়।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here