যৌন নির্যাতন ও অর্থ জালিয়াতির কেলেঙ্কারির ঘটনায় চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। সুইডিশ একাডেমি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

একাডেমি সংশ্লিষ্ট অনেকেই মনে করছেন, এ অবস্থায় চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার দেওয়া ‘প্রায় অসম্ভব’। আর পুরস্কার দেওয়া হলেও কোনো সাহিত্যিক তা গ্রহণ করবেন কি না, তা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে সুইডিশ একাডেমি জানিয়েছে, ২০১৮ সালের নোবেল সাহিত্য পুরস্কারটি ‘রিজার্ভড প্রাইজ’ হিসেবে ২০১৯ সালের পুরস্কারের সঙ্গে ঘোষণা করা হবে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংস্থাটির সক্রিয় ১০ সদস্য একটি আলোচনার পরই এই সিদ্ধান্ত নেন।

একাডেমির স্থায়ী সেক্রেটারী অ্যান্ডার্স ওলসন বলেন, পরবর্তী পুরস্কার কে পাচ্ছেন সে বিষয়ে ঘোষণার আগেই আমাদের সংস্থার প্রতি জনগণের বিশ্বাস ফিরিয়ে আনতে এটা আমাদের জরুরি মনে হয়েছে। তবে শুধুমাত্র সাহিত্যের নোবেল পুরস্কারের ক্ষেত্রেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অন্য কোনো পুরস্কার এক্ষেত্রে প্রভাবিত হবে না।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here