থানার মধ্যে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেপ্তার হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের আসামের প্রাচীন তীর্থযাত্রার স্থান হাজতে।

অভিযুক্তের নাম বিদোন কুমার দাস। তিনি রামাদিয়া থানার অফিসার বলে জানা গেছে। হাজো পুলিশ এ ঘটনাটি নিশ্চিত করে জানায়, ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তে নেমেছে তারা।

জানা গেছে, ধর্ষিতার মামলার ভিত্তিতেই বিদোন কুমার দাসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নির্যাতিতার মেডিকেল পরীক্ষাও সম্পন্ন হয়েছে।

এ ঘটনায় রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৌই অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি জানান। তিনি রাজ্য সরকারকে পরামর্শ দেন, পুলিশে নিয়োগের আগে তাদের মনস্তাত্ত্বিক পরীক্ষা করিয়ে নেয়া দরকার। কারণ একজন পুলিশের দায়িত্ব হচ্ছে নারীদের সুরক্ষা দেয়া। এটাই তার ধর্ম হওয়া উচিত। কিন্তু তা না করে নারীদের সম্ভ্রম নষ্ট করছে তারা। এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। রাজ্য সরকারকে এরপর থেকে পুলিশ নিয়োগের ক্ষেত্রে কড়া ভূমিকা গ্রহণ করতে হবে।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here