কণ্ঠশিল্পী শাহানা কাজী আবারও বলিউডের প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পীদের সঙ্গে টরন্টো মাতালেন। গত ২৮ এপ্রিল, শনিবার, টরন্টোর হারশী সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয় ‘আতিফ ও নেহা লাইভ ইন কনসার্ট’ শীর্ষক একটি মেগা কনসার্ট। সেখানে বলিউডের প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী নেহা কাক্কার ও আতিফ আসলামের সাথে এক মঞ্চে গান পরিবেশন করে দর্শকদের মুগ্ধ করলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান কণ্ঠশিল্পী শাহানা কাজী।

বাঙালি কন্যা ‘শাহানা কাজী’ তেজাব’ ছবির ‘এক দো তিন’ গানটি দিয়ে কনসার্টটির সূচনা করেন এবং বলিউডের আরো বেশ কিছু জনপ্রিয় হিন্দি গান পরিবেশন করেন। সাত হাজার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন কনসার্ট ভেন্যুটি ছিল পুরাপুরি শ্রোতা-দর্শকে ভর্তি।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সুপরিচিত কণ্ঠশিল্পী শাহানা কাজী এর আগেও বলিউডের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী সুনিধি চৌহান, সোনু নিগম, কুমার শানু, অলকা ইয়াগনিক, আতিফ আসলাম ও আয়ুষ্মান খোরানার সঙ্গে বেশ অনেকগুলো কনসার্টে একই মঞ্চে লাইভ পারফর্ম করে শ্রোতা দর্শকদের মাতিয়েছেন। আতিফ আসলামের সাথে এটি ছিল তার তৃতীয় কনসার্ট। শাহানা কাজী এর আগে হারশী সেন্টারে আরো তিনবার লাইভ পারফর্ম করেছেন।

তিনিই প্রথম বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত গায়িকা যিনি টরন্টোর প্রায় বিশ হাজার শ্রোতা-দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন কনসার্ট ভেন্যু এয়ার কানাডা সেন্টারেও লাইভ পারফর্ম করেন যেখানে শুধুমাত্র বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় তারকারা পারফর্ম করে থাকেন।

বলিউড কনসার্টের পাশাপাশি গত বছর টরন্টোতে অনুষ্ঠিত কানাডার বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল-এ বাংলা সঙ্গীতের জীবন্ত কিংবদন্তি সাবিনা ইয়াসমীন এবং ঢাকাই চলচ্চিত্রের স্বর্ণালী যুগের প্লেব্যাক সম্রাট সৈয়দ আব্দুল হাদীর সঙ্গেও এক মঞ্চে গান করে শ্রোতা দর্শকদের মাতিয়েছেন তিনি।

শাহানা কাজী টরন্টোর ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করেন। ২০১৫ সালে কানাডা থেকে প্রকাশিত হয় শাহানা কাজীর ‘ভালোবাসার কথা’ শীর্ষক একক গানের এ্যালবাম। আর এই অল্প সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক সঙ্গীতাঙ্গনে সুরের মায়াজালে অসংখ্য মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন শাহানা কাজী। লাইভ কনসার্টের এত ব্যস্ততার মধ্যেও তিনি শ্রোতাদের জন্য বেশ কিছু নতুন বাংলা গান প্রস্তুত করছেন ও দ্বিতীয় একক অ্যালবাম নিয়ে কাজ করছেন।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here