বহুল আলোচিত বাংলাদেশি অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল নির্বাচনে প্রত্যাশিত জয় পেয়ে দ্বিতীয়বারের মত নির্বাহী মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন জন বিগস। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন পিপলস অ্যালায়েন্সের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রাবিনা খান। প্রথম গণনায় জন বিগস ভোট পান ৩৭ হাজার ৬১৯টি আর রাবিনা খান পান ১৩ হাজার ১১৩টি। ১ লাখ ৯১ হাজার ২৪৬ ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৮০ হাজার ২৫২ জন। ভোট পড়েছে ৪১ দশমিক ৯৬ শতাংশ। এর মধ্যে পোস্টাল ভোট পড়েছে ১৯ হাজার ৮৩টি।

প্রাপ্ত ভোট থেকে কোনো প্রার্থীই ৫১ শতাংশ না পাওয়ায় দ্বিতীয় চয়েসের গণনা হয়। অর্থাৎ প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী জন বিগস ও রাবিনা খানকে যারা দ্বিতীয় চয়েসে ভোট দিয়েছিলেন সেগুলো প্রথম চয়েসের সঙ্গে যোগ হয়। এতে জন বিগসের ভোট বেড়ে দাঁড়ায় ৪৪ হাজার ৮৬৫টি। রাবিনা খানের হয় ১৬ হাজার ৮৭৬টি। আর তাতে আবারো নির্বাহী মেয়র নির্বাচিত হন জন বিগস।

এদিকে বাঙালি অপর দুই প্রার্থীর মধ্যে এস্পায়ারের অহিদ আহমদ পেয়েছেন ১১ হাজার ১৯ ভোট এবং কনজারবেটিভ থেকে ডা. আনোয়ারা আলী পান ৬ হাজার ১৪৯টি। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর থেকে ভোট গণনা শুরু হলেও ফলাফল দেওয়া হয় শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে।

টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলে প্রথমবারের মত নির্বাহী মেয়র নির্বাচন হয় ২০১০ সালে। তখন প্রথমবারের মতো স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে দাঁড়িয়ে লেবার দলের সাবেক কাউন্সিলার লুৎফুর রহমান নির্বাচিত হন। তার প্রাপ্ত ভোট ছিল ৫১ দশমিক ৭৬ শতাংশ। ২০১৪ সালেও দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হন লুৎফুর রহমান। তবে ২০১৫ সালে বিভিন্ন অভিযোগে তাকে আদালতের রায়ে সরে যেতে হয়।

একই বছর নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন জন বিগস। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন লুৎফুর সমর্থিত রাবিনা খান। গত নির্বাচনে জন বিগস পেয়েছিলেন প্রাপ্ত ভোটের ৪০, আর রাবিনা খান ৩৭ দশমিক ৮১ শতাংশ।

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here