চেন্নাই সুপার কিংস আবারও পয়েন্ট তালিকায় এক নম্বরে উঠে এলো৷ শনিবার ঘরের মাঠে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে ৬ উইকেটে হারায় ধোনিবাহিনি৷

বিরাটদের বিরুদ্ধে ১২৭ রান তাড়া করে দ্রুত চার উইকেট হারালেও জিততে বিশেষ কসরত করতে হয়নি ধোনিদের৷ ১০ ম্যাচে সিএসকে-এর পয়েন্ট ১৪৷

শনিবার টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং নিয়ে বিরাটদের ১২৭ রানে বেঁধে রাখে সুপার কিংস৷ সিএসকে স্পিনারদের সামনে অসহায় ব্যাটিং ধরা পড়ল বিরাট-এবিডিদের৷ চার ওভার হাত ঘুরিয়ে তিন উইকেট তুলে নেন রবীন্দ্র জাদেজা৷

আগের ম্যাচেই ইডেনে এক ওভারে সুনীল নারিনের দুটি ক্যাচ ফেলেছিলেন সুপার কিংস ফ্যানেদের কাছে ‘ভিলেন’ হয়ে উঠেছিলেন এই বাঁ-হাতি এই বোলার৷ সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠে এদিন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করলেন জাড্ডু৷ ১১টি ডট বল করেন জাদেজা৷ তাঁর দুর্দান্ত বোলিংয়ের সুবাদেই চেন্নাই এদিন ব্যাঙ্গালোরকে অল্প রানে বেঁধে ফেলে৷

কোহলিকে বোল্ড করা ছাড়াও পার্থিব প্যাটেল ও মনদীপ সিংয়ের উইকেট তুলে নেন জাদেজা৷ তিন উইকেট তুলে নিলেও এদিন কোনও সেলিব্রেশনে মাতেননি জাড্ডু৷

উইকেট পেয়েও সেলিব্রেশন না করে নাইট ম্যাচে ক্যাচ মিসেরই যেন প্রায়চিত্ত করলেন চেন্নাইয়ের বাঁ-হাতি স্পিনার৷ জোড়া ক্যাচ ছেড়ে ইডেনে নাইট ম্যাচ হারে চেন্নাই সুপার কিংস৷ আর এদিন রয়্যাল ফিল্ডাররাা ডোয়েন ব্র্যাভোর জোড়া ক্যাচ ছাড়ায় চেন্নাইয়ের জয় সহজ হয়ে যায়৷

১২৭ রান তাড়া করতে নেমে সুপার কিংস ৮০ রানে চার উইকেট হারানোয় সাময়িক চাপ সৃষ্টি হয়েছিল চেন্নাই শিবিরে৷ কিন্তু ‘ক্যাপ্টেন কুল’ তিন ছক্কায় সেই চাপ গ্যালারিতে পাঠিয়ে দু’ ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয়৷ ২৩ বলে ৩১ রানে অপরাজিত থাকেন ধোনি৷ আর ১৭ বলে ১৪ রানে অপরাজিত থাকেন ব্র্যাভো৷ এর আগেয় অম্বাতি রায়ডু ৩২ এবং সুরেশ রায়না ২৫ রান করেন৷

এর আগে প্রথম ব্যাটিং করে চূড়ান্ত ব্যর্থ কোহলির ব্যাটিং লাইন আপ৷ জাদেজার প্রথম ওভারের সাধারণ একটি ডেলিভারিতে বোল্ড হন কোহলি৷ ডাগ-আউটে ফেরেন মাত্র ৮ রানে৷ কোহলির পাশাপাশি ম্যাকালাম- ডি’ভিলিয়ার্সরা চূড়ান্ত ব্যর্থ৷ দুই ম্যাচ পরে দলে ফিরে মাত্র ১ রান করে হরভজনের বলে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসেন এবিডি৷ ম্যাকালাম আউট হন ৫ রানে৷ রয়্যালসের হয়ে এদিন একমাত্র রান পান পার্থিব প্যাটেল৷ মনন ভোরার পরিবর্ত দলে ঢুকে অধিনায়কের আস্থার মর্যাদা দেন বাঁ-হাতি উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান৷ ৫টি বাউন্ডারি ও ২টি ছয়ের সাহায্যে ৪১ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলেন পার্থিব৷

সিএসকে’র হয়ে জাদেজা ছাড়া হরভজন সিংও দারুণ বোলিং করলেন৷ ২২ রান দিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন ভাজ্জি৷ অভিষেক ম্যাচে বল হাতে নজর কাড়লেন ব্রিটিশ পেসার ডেভিড উইলি৷ ২৪ রান খরচ করে একটি উইকেট তুলে নিয়েছেন বাঁ-হাতি এই বোলার৷

**রাজনৈতিক, ধর্মবিদ্বেষী ও খারাপ কমেন্ট করা থেকে বিরত থাকুন।**

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here